| দুপুর ২:১৫ - রবিবার - ৩রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৩রা জিলহজ, ১৪৪৩ হিজরি

থেমে নেই বাংলাদেশের ‘বজরঙ্গী ভাইজান’

লোক লোকান্তরঃ   ভারত থেকে পাচার হয়ে বাংলাদেশের বরগুনায় আসা এক শিশুকে অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে দীর্ঘ ছয় বছর পরে ভারতে তার বাবা-মায়ের কাছে পৌঁছে দিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। তিনি বরগুনার জামাল ইবনে মুছা।

 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময়’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তিনি ভারত-বাংলাদেশের জনতার হৃদয়ে বাংলাদেশের ‘বজরঙ্গী ভাইজান’ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছিলেন।

 

এবার লকডাউনেও থেমে রইলেন না সেই জামাল ইবনে মুছা। থেমে রইলো না তার মানবিকতার কাজ। বরগুনার বেতাগী উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল গেরামর্দন গ্রামে নিজের যেটুকু সামান্য জমি রয়েছে, তার সবটুকু দান করে তিনি গড়ে তুলেছেন বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর এবং হযরত মোহাম্মদ (সা.) স্মৃতি পাঠাগার।

 

এছাড়াও ঢাকার রাস্তায় ঠিকানাবিহীন পড়ে থাকা এক বৃদ্ধাকে নিজের বাড়িতে দিয়েছেন আশ্রয় জামাল। করছেন বৃদ্ধার সব ভরণপোষন। তাছাড়া মরনোত্তর চক্ষু ও দেহ দান করেছেন জামাল ইবনে মুছা।

 

বরগুনার স্থানীয় এক শিক্ষার্থী জানান, জামাল ইবনে মুছার লাইব্রেরিতে শুধু ইসলাম ধর্ম নয়, সকল ধর্মের বই রয়েছে। এই ভাবেই সর্বধর্ম সমন্বয়ের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন জামাল। এতে আছে নতুন নতুন অনেক বই, যা পড়ে শিক্ষার্থীরা অনেক কিছু জানতে পারছে। সেই সঙ্গে সকলে যাতে ভালোবেসে বাঁচতে পারেন সেই চেষ্টাও চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:২১ অপরাহ্ণ | জুন ১৯, ২০২০