| রাত ৩:৪০ - শুক্রবার - ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৪ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

বিপিএলে ফিক্সিং দায়ে ৬ বছর নিষিদ্ধ এই উইকেটরক্ষক

লোক লোকান্তরঃ   দুইটি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে অনৈতিক কর্মকাণ্ডের দায়ে ৬ বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ হয়েছেন দুর্নীতির দায়ে, অভিযুক্ত ক্রিকেটার  আফগানিস্তানের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান শফিকুল্লাহ শফিক।

 

শফিকুল্লাহর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, ২০১৮ সালে আফগানিস্তান প্রিমিয়ার লিগের (এপিএল টি-টোয়েন্টি) প্রথম আসর এবং ২০১৯ সালে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ম্যাচ গড়াপেটায় জড়িত ছিলেন তিনি।

 

এন্টি করাপশন ট্রাইবুনাল তার বিরুদ্ধে চারটি নিয়ম লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে। সবগুলো অভিযোগই স্বীকার করে নিয়েছেন আফগানিস্তানের উইকেটরক্ষক এই ব্যাটসম্যান। তার ভিত্তিতে শফিকুল্লাহকে এই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)।

 

শফিকুল্লাহর বিরুদ্ধে অভিযোগগুলোর মধ্যে রয়েছে-ফিক্সিং কিংবা যে কোনোভাবে তাতে প্রভাব রাখা, অথবা কোনো ঘরোয়া ম্যাচে ইচ্ছাকৃতভাবে খারাপ পারফর্ম করা। ম্যাচে কোনো কাজ করার জন্য ঘুষ গ্রহণ কিংবা গ্রহণে সম্মত হওয়া, তদন্ত কাজ বাধাগ্রস্থ করার চেষ্টাসহ আরও কয়েকটি অভিযোগ।

 

আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সিনিয়র এন্টি-করাপশন ম্যানেজার সাইদ আনোয়ার শাহ কোরায়শী বলেন, ‘এটা সেই সব খেলোয়াড়দের জন্য সতর্কবার্তা যারা মনে করে, তাদের অনৈতিক কাজ এসিবির দুর্নীতি দমন ইউনিট প্রকাশ করবে না। যা ভাবা হয় তার চেয়ে অনেক বেশি আমাদের নজরদারি।’

 

৩০ বছর বয়সী শফিকুল্লাহ আফগানিস্তানের হয়ে ২৪টি ওয়ানডে আর ৪৬টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। জাতীয় দলের নিয়মিতই সদস্যই ছিলেন তিনি। গত বছরের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে চট্টগ্রামে টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও খেলেছেন।

 

এরপর ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে বিপিএল খেলেছেন সিলেট থান্ডার্সের হয়ে। তিন ম্যাচে শফিকুল্লাহর ইনিংসগুলো ছিল-২, ৬ এবং ১০ রানের। বিপিএলের সর্বশেষ এই আসরেই দুর্নীতি করেছেন বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৩১ অপরাহ্ণ | মে ১০, ২০২০