| সকাল ৭:১৭ - শনিবার - ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ - ৩রা শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

ময়মনসিংহে কবর স্থানের রাস্তা নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষ, আহত ২৫

মুক্তাগাছা প্রতিনিধিঃ   কবর স্থানের রাস্তা নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ২৫ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন, তালেব আলী, নজরুল, আঃ মান্নান, আঃ রেজ্জাক, নয়ন, বেগম, রেহানা, মেহারজান, ফজলুল হক, হোসেন আলী, শিল্পী, আঃ ছাত্তার, আলাউদ্দিন, ইব্রাহিম ,মোতালেব, সমলা বেগম, আঃ কদ্দুছ, হোসেন আলী, শহীদ, শহীদুল, আমেনা বেগম, হাছেন আলী, সাহিদা বেদম।

 

ঘটনাটি ঘতেছে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার বিন্নাকুরি এলাকায়।

 

জানাযায়, বিন্নাকুরি গ্রামে আলালের বাড়ি সংলগ্ন সামাজিক কবর স্থানের রাস্তা নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। গত ৫মার্চ বেলা ১টায় কবরস্থানের রাস্তা নিয়ে শালিস বসে। শালিসে কবর স্থান সংলগ্ন খাস জমির রাস্তা দিয়ে কবর স্থানে পথচারীদের চলাচলের পথ সুগম করার ব্যবস্থা গ্রহনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

 

পরবর্তীতে আলাল গংরা শালিস অমান্য করে অতর্কিত মাতাব্বরদের উপর হামলা করে ১০/১২ জনকে আহত করে। বিষয়টি এলাকাবাসী জানার পর জনতা বিক্ষুব্দ হয়ে আলাল গংদের উপর হামলা করে। এতে ১২/১৩ জন আহত হয়। এ বিষয়টি উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ জানার পর উভয় পক্ষকে মামলা না করে মিমাংসা করার জন্য বলেন। কিন্তু আলাল গংরা একটি প্রভাবশালী মহলের সহযোগিতায় গত ১৫ মার্চ মুক্তাগাছা থানায় মামলা দায়ের করে।

 

এ বিষয়ে মামলায় অভিযুক্ত আব্দুল্লাহ ওরফে লাল চান জানান, এটি একটি সামাজিক কবর স্থান। চল্লিশ জন অংশিদার জমি কিনে এ কবর স্থানে লাশ দাফন করে আসছে। কবর স্থানের পাশ দিয়ে খাস জমির রাস্তা ব্যবহার করে পথচারীসহ কবর স্থানে যাওয়ার রাস্তা ছিল। কিন্তু আলালসহ মাত্র ৩ ব্যক্তি এ রাস্তা বন্ধ করার  ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়।

কবর স্থানের রাস্তা নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে আহত কয়েকজন। লোক লোকান্তর

 

গত ৫মার্চ শালিসের সিদ্ধান্তে কবর স্থান ও রাস্তার সীমানা খুঁটি  স্থাপন করা হয়। শালিস শেষ হওয়ার পর আলাল গংরা অতর্কিত মাতাব্বরদের উপর হামলা চালিয়ে কয়েকজনকে মারাত্মক ভাবে জখম করে।

 

তিনি আরও জানান, চল্লিশটি পরিবার উক্ত কবর স্থানটি অংশিদারিত্বের মাধ্যমে পরিচালনা করে আসছে। তার মধ্যে আলাল গংরা ৩ টি পরিবার প্রতিহিংসা মূলক ভাবে এর বিরোধিতা করে আসছে। সর্বশেষ উক্ত ঘটনার পর আলালের পক্ষের লোক আঃ রাজ্জাক এলাকার সরকারী  রাস্তা কেটে এলাকাবাসীর চলাচলের বিঘ্ন ঘটাচ্ছে।

 

ভবিষ্যতে যাতে এনিয়ে আর কোন অঘটন না ঘটে সে লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে নিরীহ এলাকাবাসী ।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:১৩ অপরাহ্ণ | মার্চ ১৮, ২০১৭