| সকাল ৬:২৪ - শনিবার - ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ - ৩রা শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

বোরো মৌসুমে ধু ধু বালুচরে পরিণত তিস্তা ব্যারেজ

লোক লোকান্তরঃ  তিস্তা চুক্তির অভাবে দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারেজ এখন কার্যত অচল হয়ে পড়েছে। তিন জেলায় সেচ সুবিধা দেওয়ার কথা থাকলেও পানির অভাবে এবার শুধু নীলফামারী জেলার চারটি উপজেলায় আট হাজার হেক্টর জমিতে সেচ সুবিধা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে কাজ শুরু করেছে পাউবো কর্তৃপক্ষ। এতে করে সেচনির্ভর এ অঞ্চলের কৃষকদের মধ্যে নেমে এসেছে হতাশা।

 

২৩ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার সময় টিভির এক প্রতিবেদনে এ সব তথ্য উঠে এসেছে।

 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রথম পর্যায়ে রংপুর, দিনাজপুর এবং নীলফামারী জেলার এক লাখ ১১ হাজার হেক্টর জমিতে সেচ সুবিধা দেয়ার লক্ষ্য নিয়ে ১৯৯০ সালে তিস্তা ব্যারেজ প্রকল্পের যাত্রা শুরু হয়। পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) গত বছরের মতো এবারো আট হাজার হেক্টর জমিতে সেচ দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। তবে, লক্ষ্যমাত্রার ভেতরেও থাকছে না নিয়মিত পানি। ফলে ভোগান্তির শেষ নেই তিস্তাপাড়ের কৃষকের।

 

বোরো মৌসুমের শুরুতেই পানির অভাবে ধু ধু বালুচরে পরিণত হয়ে অকার্যকর হয়ে পড়েছে তিস্তা ব্যারেজ। এতে করে এ অঞ্চলের কৃষক এবং জেলেরা বেকার হয়ে পড়ার পাশাপাশি জীব বৈচিত্র্যেও দেখা দিয়েছে মারাত্মক প্রভাব। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পানি চুক্তির অভাবে এ অঞ্চল ক্রমেই মরুকরণ হতে চলেছে। উত্তরাঞ্চলের খাদ্য নিরাপত্তা বলয়কে রক্ষা করতে দ্রুত তিস্তা চুক্তি কার্যকর করে কৃষক এবং কৃষিকে বাঁচাতে হবে।

 

ছবিঃ ব্যারেজের দুই পাশে শুকিয়ে গেছে তিস্তা। ফাইল ছবি

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:১২ পূর্বাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৭