| সন্ধ্যা ৬:০৪ - বৃহস্পতিবার - ১১ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ২৮শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ - ১লা শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

ময়মনসিংহে ডুয়েলগেজ রেলপথ নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহন

লোক লোকান্তরঃ  গাজীপুরের জয়দেবপুর থেকে ময়মনসিংহ হয়ে জামালপুর পর্যন্ত সমান্তরাল দ্রুতগতির ১৬৬ কিলোমিটার ডুয়েলগেজ (ডাবল লাইন) রেলপথ নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে রেলপথ মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে মেইন লাইন ১৪৩ কিলোমিটার এবং লুপ লাইন ২৩ কিলোমিটার।

 

দীর্ঘ এই ডুয়েলগেজ ট্র্যাক নির্মাণের ব্যয় ধরা হয়েছে ৫ হাজার ৭২৯ কোটি টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে দেওয়া হবে ১ হাজার ১৪৫ কোটি ৮০ হাজার টাকা এবং চীন সরকার ৪ হাজার ৫৮৩ কোটি ২২ লাখ টাকা ঋণ সহায়তা দেবে।

 

রেলপথ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ‘কন্সট্র্যাকশন অব অ্যা ডুয়েলগেজ (ডিজি) ট্র্যাক প্যারাল টু দ্য মিটারগেজ (এমজি) লাইন ইন জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ-জামালপুর’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় চলতি বছর থেকে শুরু করে ২০২১ সালের জুন মেয়াদে রেলপথটি নির্মিত হবে। প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকার ও চীনের নীতিগত অনুমোদনও পাওয়া গেছে। সড়ক যোগাযোগ বেহাল হওয়ায় এ রুটে রেলপথে যাত্রীদের চাহিদা অনেক। এ কারণে দ্রুততম সময়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করতে চায় মন্ত্রণালয়।

 

প্রকল্পের আওতায় বড় বড় কিছু খাতের ব্যয় প্রাক্কলন করা হয়েছে উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনায়(ডিপিপি)। এর মধ্যে ডাবল লাইন নির্মাণে ১ হাজার ৮১৩ কোটি টাকা, রেলপথজুড়ে প্রয়োজনীয় বাঁধ নির্মাণে ১ হাজার ১৫৪ কোটি টাকা, ছোট-বড় সেতু নির্মাণে ৪২৮ কোটি ২৮ লাখ টাকা এবং সিগন্যাল উন্নয়নে ২৩ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয় হবে। অন্যদিকে পরামর্শক খাতে ৬৩ কোটি ৮৫ লাখ টাকা এবং ভূমি অধিগ্রহণ ও পুনর্বাসন খাতে ৪৫০ কোটি টাকা ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে।

 

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন বলেন, ঢাকা-ময়মনসিংহ ও জামালপুরে সিঙ্গেল লাইলন রেলপথ বিদ্যমান। ফলে আমরা এ রুটে অতিরিক্ত ট্রেন পরিচালনা করতে পারছি না। এ রুটে ট্রেনের চাহিদা প্রচুর। কিন্তু আমরা পর্যাপ্ত ট্রেন দিতে ব্যর্থ হচ্ছি। তাই দ্রুততম সময়ের মধ্যে জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ-জামালপুর রুটে দ্রুতগতির ডাবল লাইন রেলপথ নির্মাণ করবো। এখন যদি ৬ জোড়া ট্রেন চলে, ডাবল লাইন হয়ে গেলে ১২ জোড়া ট্রেন পরিচালনা করতে পারবো।

 

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, রাজধানীর সঙ্গে আশেপাশের জেলা সদরের সঙ্গে দ্রুত যোগাযোগ ব্যবস্থা নিশ্চিতসহ যাত্রী ও মালামাল পরিবহনে সময় কমানোর লক্ষ্যেই এ উদ্যোগ। যেন যানজট ছাড়াই ঢাকার আশপাশের জেলা শহরে স্বচ্ছন্দে চলাচল করতে পারেন যাত্রীরা। প্রকল্পের মাধ্যমে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সেকশন ক্যাপাসিটি এবং অপারেশন ব্যবস্থাও উন্নত হবে।

 

সূত্র জানায়, ঢাকার আশপাশে গাজীপুর, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, নরসিংদী ও নারায়ণগঞ্জ জনবহুল শহর। যাতায়াতের সহজ মাধ্যম না থাকা এবং যানজটের কারণে এসব শহরের অনেকে ঢাকায় অবস্থান করেন। রেলপথটির উন্নয়ন করা হলে তাই ঢাকার ওপরেও মানুষের চাপ কমবে। অনেকে অফিস শেষে এসব স্থানে চলে যাবেন। ফলে যানজটও কমবে। বর্তমানে রেলপথে ঢাকা থেকে জামালপুরে যেতে ৬ ঘণ্টা ও ময়মনসিংহে যেতে সময় লাগে প্রায় চার ঘণ্টা।দ্রুতগতির ডুয়েলগেজ রেলপথটি নির্মিত হলে সাড়ে তিন ঘণ্টায় জামালপুর ও দুই ঘণ্টায় ময়মনসিংহ পৌঁছানো যাবে।

 

বর্তমানে জয়দেবপুর থেকে জামালপুরে ছয় জোড়া মালবাহী ট্রেন চলাচল করে। বিভিন্ন নিত্যপণ্য, সার, খাবার ও তেল পরিবহন করা হয় ময়মনসিংহ ও জামালপুর রুটে। প্রতিনিয়তই এসব অঞ্চল অর্থনৈতিকভাবে উন্নত হচ্ছে। ফলে সড়কপথেও দেখা দিচ্ছে নানা জটলা, যাতায়াতে ভোগান্তিতে পড়ছেন যাত্রীরা। এসব রুটে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতিনিয়ত ঝরছে তাজা প্রাণও।

 

সড়কের চেয়ে রেলপথ অনেক নিরাপদ ও আরামদায়ক। তাই কম সময়ে ও নিরাপদে রাজধানীর আশপাশে বেশি যাত্রী পরিবহনেও সহায়ক হবে দ্রুতগতির ডাবল লাইন রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পটি।

 

ফাইল ছবি

সর্বশেষ আপডেটঃ ১২:৫৪ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৭