| রাত ২:২৯ - রবিবার - ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

শেরপুর কামারিয়া ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে চলেছেন হুইপ আতিউরের ভাই বারী!

শেরপুর প্রতিনিধি: ১৫ এপ্রিল ২০১৬, শুক্রবার

শেরপুরের সদর উপজেলার কামারিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. আব্দুল বারী। বারী জাতীয় সংসদে সরকার দলীয় হুইপ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আতিউর রহমানের ছোট ভাই। বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় এবং অন্য চার প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের জন্য আবেদন করায় নির্বাচনে তিনিই (বারী) একমাত্র প্রার্থী থাকছেন। ফলে তাঁর নির্বাচিত হওয়ার বিষয়টি প্রায় নিশ্চিত। সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, আগামী ৭ মে অনুষ্ঠেয় কামারিয়া ইউপির নির্বাচনে ছয় প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। এঁরা হলেন আওয়ামী লীগের মো. আব্দুল বারী, বিএনপির সুলতান আহম্মেদ স্বপন, আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নূরে আলম সিদ্দিকী ও তাঁর স্ত্রী মোছা. শান্তনা ইয়াছমিন, স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ লিয়াকত আলী এবং মো. বিরাজ আলী। গত ৭ এপ্রিল ছিল মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। এঁদের মধ্যে গত ১১ এপ্রিল সোমবার বাছাইয়ের শেষ দিনে বিএনপির প্রার্থী সুলতানের মনোনয়নপত্রে প্রস্তাবক ও সমর্থকের স্বাৰর জাল করার অভিযোগে রিটার্নিং কর্মকর্তা তাঁর মনোনয়নপত্র বাতিল করেন।
সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, আগামী ১৮ এপ্রিল কামারিয়া ইউপির প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। কিন’ ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুল বারী ছাড়া অন্য চার প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ার জন্য তাঁর (রিটার্নিং কর্মকর্তা) কাছে লিখিতভাবে আবেদন করেছেন। এখন একমাত্র বৈধ প্রার্থী থাকছেন আওয়ামী লীগের আব্দুল বারী। ফলে অন্য কোন ব্যত্যয় না ঘটলে আব্দুল বারীই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হতে চলেছেন। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের জন্য কেন আবেদন করেছেন জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ কামারিয়া ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নূরে আলম সিদ্দিকী বলেন, তাঁর ব্যাপক জনপ্রিয়তা থাকা সত্ত্বেও দল তাঁকে মনোনয়ন দেয়নি। তথাপি জনগণের ইচ্ছায় তিনি নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন। কিন’ দলের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করে ও দলীয় সভানেত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা রেখে তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:২১ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৫, ২০১৬