| রাত ১:৫১ - রবিবার - ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

বাজিতপুরে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০, নিবাচনী অফিস ভাংচুর।

বাজিতপুর (কিশোরগঞ্জ) সংবাদদাতা ঃ ২১ মার্চ ২০১৬, সোমবার
কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলার মাইজচর ইউনিয়নের পাড় কচুয়া গ্রামে আওয়ামীলীগ চেয়ারম্যান প্রার্থী তৈয়্যুবুর রহমান-এর সমর্থক ও বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী সমর্থকদের মাঝে পৃথক সংঘর্ষে অন্তত ১০জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ইউনিয়ন বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ জমির আলী(৪৫)কে প্রথমেই উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্সে পরে গতকাল সোমবার সকালে জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আওয়ামীলীগের ইউনিয়নের কর্মী রুবেল মিয়া (২৪) কে ইউনিয়ন উপস্বাস’্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে বলে স’ানীয় সূত্রে জানা গেছে। এই ঘটনাটি ঘটে গত রবিবার রাত- সাড়ে দশটার দিকে পাড়কচুয়া গ্রামের সন্নিকটে। আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী মোঃ তৈয়্যুবুর রহমান আজ সকালে জানান, মোঃ জমির আলী গত রবিবার রাতে তার কর্মীরা গ্রামে গ্রামে ভোট চাইতে গেলে সে বাধা প্রদান ও তার লোকজনদেরকে মারধর করেছে। এদিকে জমির মিয়া বলেন, রাত সাড়ে দশটার দিকে অর্তকিত ভাবে তাদের উপর হামলা চালিয়েছে আওয়ালীগের কর্মীরা। অন্যদিকে গত শনিবার রাতে গাজিরচর ইউনিয়নে আনন্দ বাজারে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আতিকুল হক বাবুল এর কর্মী সমর্থকরা আওয়ামীলীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী জুয়েল মিয়ার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করেছে। এ বিষয়ে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হুমায়ুন মিয়া বাদী হয়ে গতকাল সোমবার অজ্ঞাত নামা ৪৫-৫০ জনের বিরুদ্ধে বাজিতপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এই অভিযোগ অস্বীকার করে চেয়ারম্যান প্রার্থী আতিকুল হক বাবুল জানান, তার লোকজন আওয়মীলীগের অফিস ভাংচুর করে নি। তিনি বলেন, বিএনপির কথিত নেতারা আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করেছে বলে সত্যতা স্বীকার করেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:৫৫ অপরাহ্ণ | মার্চ ২১, ২০১৬