| রাত ৪:৫৬ - বৃহস্পতিবার - ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ৬ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

ঝিনাইগাতীতে শিক্ষার্থীকে জুতাপেটা করায় থানায় অভিযোগ

 

ঝিনাইগাতী (শেরপুর) প্রতিনিধি,  ১৫ মার্চ ২০১৬, মঙ্গলবার, 
শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার বাকাকুড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে জুতাপেটা করার অভিযোগে ৩ শিক্ষকের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত ওই তিন শিক্ষকরা হচ্ছেন, প্রধান শিক্ষক মাহবুবুর রহমান, সহকারী শিক্ষক আব্দুস সাত্তার ও মজিবুর রহমান। তারা গ্রেফতার এড়াতে বিদ্যালয় ছেড়ে গাঁ ঢাকা দিয়েছে। ফলে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পড়া লেখা মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। অভিযোগে প্রকাশ, গত ৪মার্চ বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী শিৰক আব্দুছ ছাত্তার শিক্ষার্থীদের হট্টগোল থামাতে জুতাপেটা করে। এ নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সেলিম রেজা, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ নাছির উদ্দিন ও ওসি মিজানুর রহমান ঘটনাস’লে গিয়ে পরিসি’তি নিয়ন্ত্রনে আনে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিক্ষার্থীদের জুতাপেটার ঘটনাসহ ওই বিদ্যালয়ের ব্যাপক অনিয়ম, অব্যবস’াপনা, শিৰকদের দুর্ণীতিসহ নানা কারণে বিদ্যালয়ের পড়ালেখা মুখ থুপড়ে পড়ার অভিযোগ পান। এসব বিষয়ে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ইউএনও মোহাম্মদ সেলিম রেজা উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে প্রধান করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দেন। এছাড়া জুতাপেটার ঘটনার সাথে জড়িত ওই শিৰকদের বিরুদ্ধে অভিভাবকদের পৰ থেকে প্রধান শিক্ষক মাহবুবুর রহমান, সহকারী শিৰক মজিবর রহমান ও আব্দুছ ছাত্তারকে আসামী করে থানায় পৃথক ২টি অভিযোগ দায়ের করা হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অভিযোগ গুলো মামলা হিসেবে আমলে নেয়নি থানা পুলিশ। এদিকে, গ্রেফতার এড়াতে ওই ৩ শিক্ষক বিদ্যালয় ছেড়ে গাঁঢাকা দিয়েছেন। ঝিনাইগাতী থানার ওসি মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:১৯ অপরাহ্ণ | মার্চ ১৫, ২০১৬