| রাত ২:৩০ - রবিবার - ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ঝিনাইগাতীতে স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করায় যুবককে কারাদণ্ডঃ কারাগারে প্রেরণ

 

শেরপুর প্রতিনিধি:  ১৪ মার্চ ২০১৬, সোমবার, 
শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার অভিযোগে ছয়মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডপ্রাপ্ত যুবক মনির হোসেনকে (১৮) জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আজ ১৪ মার্চ সোমবার দুপুরে ঝিনাইগাতী থানা পুলিশ মনিরকে কারা কর্তৃপৰের নিকট হস্তান্তর করেন। গত ১৩ মার্চ রোববার সন্ধ্যা সাতটায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম ও ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ সেলিম রেজা এ দন্ড প্রদান করেন।
মনির উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের গান্ধিগাঁও পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুল হকের ছেলে। তিনি স্থানীয় একটি কারিগরি কলেজের কৃষি ডিপ্লোমা শিক্ষার্থী।
উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন যাবত মনির হোসেন তাঁর প্রতিবেশী এক স্কুল ছাত্রীকে স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করতেন। বিষয়টি ওই ছাত্রীর অভিভাবকরা মনিরের বাবা-মাকে একাধিকবার জানালেও কোন কাজ হয়নি। উপয়ান্তর না পেয়ে ওই ছাত্রীর বাবা গত রোববার বিকেলে বিষয়টি ঝিনাইগাতীর ইউএনও সেলিম রেজাকে জানান। পরে ইউএনওর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত গান্ধিগাঁও পূর্বপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে মনির হোসেনকে আটক করেন। এ সময় ঝিনাইগাতী থানা পুলিশ ভ্রাম্যমাণ আদালতকে সহযোগিতা করেন।
পরে গত রোববার সন্ধ্যা সাতটায় ইউএনওর কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আদালতের নির্বাহী হাকিম মোহাম্মদ সেলিম রেজা দন্ড বিধির ৫০৯ ধারায় মনির হোসেনকে দোষী সাব্যস্ত করে ছয়মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।
শেরপুর জেলা কারাগারের কারাধ্যৰ মো. ইসমাইল হোসেন দন্ডপ্রাপ্ত মনির হোসেনকে কারাগারে আনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৫৬ অপরাহ্ণ | মার্চ ১৪, ২০১৬