| রাত ৪:১৮ - শুক্রবার - ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৪ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

মুক্তাগাছায় শালিস অমান্য করে অন্যের জমি জবর দখল করে রেখেছে একটি প্রভাবশালী মহল

মুক্তাগাছা ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:   মুক্তাগাছায় একটি প্রভাবশালী মহল শালিস অমান্য করে অন্যের জমি জবর দখল করে রেখেছে দীর্ঘ দিন যাবত। এব্যাপারে একাধিকবার জমি ছেড়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েও জমি ছাড়েনি মহলটি।
জানাযায়, উপজেলার নরকোণা গ্রামের মোঃ শুকুর আলী গংদের সাথে ফজলুল হক (ঠান্ডা) গংদের পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে বিরুধ চলে আসছিল। এ নিয়ে ইউনিয়নের গণ্যমান্য ব্যাক্তিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের নিয়ে গত ৮/৪/২০১৫ ইং তারিখে একটি শালিস অনুষ্ঠিত হয়। শালিসে উভয় পক্ষের জমির কাগজপত্র পর্যালোচনা করে শুকুর আলী গংরা জমির প্রকৃত মালিক হিসেবে বিবেচিত হন। সূত্রঃমতে শুকুর আলীর পিতা সমর আলী ও ফজলুল হকের পিতা ওমর আলী পৈত্রিক সম্পত্তির ৪৯ শতাংশের মালিক। বিভিন্ন সময়ে সমর আলী ও অন্যান্য একাধিক ব্যক্তির নিকট ওমর আলী রেজিষ্ট্রি দলিল মূলে পৈত্রিক সম্পিত্িতর তার অংশ বিক্রি করে দেয়। তার মালিকানা ৪৯ শতাংশ জমি বিক্রি করার পরও অতিরিক্ত আরও ২৩ শতাংশ জমি বিক্রি করে দেন্‌। তার পরও ক্ষান্ত হয়নি ফজলুল হক গংরা্‌। তারা জোর পূর্বক সমর আলীর পুত্র শুকুর আলী গংদের ৩৪ শতাংশ জমি অবৈধ ভাবে জবর দখল করে রাখে। এ ব্যাপারে শালিসিগণের নিকট থেকে ফজলুল হক গংরা জমি ছেড়ে দেয়ার জন্য বাংলা ৩০শে কার্তিক ১৪২২ সন পর্যন্ত সময় নেন। কিনতু প্রতিশ্রুত সময় অতিবাহিত হওয়ার পরও বিভিন্ন ভাবে টারবাহানা করে যাচ্ছে। উল্টো তাদেরকে প্রাণনাশের হুমকিসহ মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করার হুমকি দিচ্ছে ।এব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ প্রশাসনের দৃস্টি আকর্ষণ করেছে শুকুর আলী গংরা।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৫৮ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৬