| দুপুর ১২:২৩ - শনিবার - ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ৮ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

কিশোরগঞ্জে জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্য সেবা পৌঁছে দেয়ার তাগিদ পৌর মেয়রের

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি,৬ফেব্রুয়ারি ২০১৬ঃ   কিশোরগঞ্জ পৌর এলাকার সাধারণ জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্য সেবা পৌঁছে দেয়ার তাগিদ দিয়েছেন নবনির্বাচিত মেয়র মাহমুদ পারভেজ। বিশেষ করে মা ও শিশুর স্বাস্থ্য সেবার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার ও গুরুত্ব দিয়ে নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের আন্তরিকভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। শনিবার সকালে শহরের চর শোলাকিয়া এলাকার নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্র-১ এবং দুপুরে তারাপাশা এলাকার নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্র-২ পরিদর্শনকালে তিনি নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্র যেন সেবা বান্ধব প্রতিষ্ঠান হিসেবে পৌরবাসীর স্বাস্থ্য সেবায় আস্থা অর্জনের পাশাপাশি আরো কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে সেজন্যে নানা পরামর্শ ও নির্দেশনা দেন। সকালে চর শোলাকিয়া এলাকার নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্র-১ পরিদর্শনকালে মেয়র নিজের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত ৩০ টাকা ফি দিয়ে পারিবারিক হেলথ কার্ড সংগ্রহ করেন। এ সময় কেন্দ্রের ল্যাব টেকনিশিয়ান মঈনুল হোসেন পরীক্ষার জন্য মেয়রের রক্তের নমুনা সংগ্রহ করেন। পরিদর্শনকালে আরবান প্রাইমারী হেলথ কেয়ার সার্ভিসেস ডেলিভারী প্রজেক্টের ব্যবস্থাপক মো. জহিরুল ইসলাম মেয়রকে জানান, প্রকল্পের আওতায় নগর মাতৃসদন এবং দুইটি নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মাধ্যমে পৌরবাসীর প্রজনন স্বাস্থ্য ও শিশুস্বাস্থ্য ছাড়াও সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ ও সাধারণ রোগ নিরাময়ে সেবা প্রদান করা হচ্ছে। পৌরসভার মোট ৪ হাজার ৬০০টি পরিবার লাল হেলথ কার্ডের মাধ্যমে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছেন বলেও তিনি জানান। এ সময় মেয়র মাহমুদ পারভেজ পৌর এলাকার অসহায় ও নিম্ন আয়ের মানুষেরা যেন এখান থেকে আরো বেশি উপকৃত হতে পারেন এবং তাদের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা যায় সে জন্যে ব্যাপক প্রচারণা ও সচেতনতা বাড়ানোর পরামর্শ দিয়ে বলেন, নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্রের দ্বার সব সময়ে সব মানুষের জন্যে উন্মুক্ত রাখতে হবে। অসহায় কিংবা দরিদ্র কোন মানুষই যেন পৌরসভার এই স্বাসস্থ্য সেবা কার্যক্রম থেকে বাদ না পড়ে সেক্ষেত্রে আরো ব্যাপক উদ্যোগ নিতে হবে। সেবা কেন্দ্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা কেবল চাকরি হিসেবে নয় সেবার মনোভাব থেকে জনগণের জন্য কাজ করে যাবেন বলেও মেয়র আশাপ্রকাশ করেন। পরিদর্শনকালে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের শাখা ব্যবস্থাপক মো. অহিদুল ইসলাম, জেলা ক্যাব সভাপতি আলম সারোয়ার টিটু, জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ মেয়রের সঙ্গে ছিলেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:২১ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০১৬