| রাত ৪:৩৫ - শুক্রবার - ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৪ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গফরগাঁওয়ে ১৮৪ শিক্ষকের পদ শূন্য

আজহারুল হক, গফরগাঁও,১১ জানুয়ারি ২০১৬ঃ
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে ২৩৭টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মধ্যে ৭৩টিতে প্রধান শিক্ষক ও ১১১ টি সহকারি শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। দীর্ঘদিন যাবত ওইসব বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ও সহকারি শিক্ষক না থাকায় দাপ্তরিক কাজের পাশাপাশি পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে। এরই মধ্যে গত ২২ নভেম্বর থেকে প্রাথমিকের সমাপনী পরীক্ষা শুরু হয়েছে। শিক্ষক সংকটে অনেক বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেণীর সমাপনীর জন্য আলাদাভাবে ক্লাস না হওয়ায় ফল তুলনামূলক ভাল না হওয়ার আশঙ্কা করছেন অভিভাবকরা।
সহকারি ও প্রধান শিক্ষক সংকটে অনেক বিদ্যালয়ে ৬ জন শিক্ষকের স্থলে ৩জন আবার কোন বিদ্যালয়ে ৪জন শিক্ষকের স্থলে ২ জন শিক্ষক কর্মরত রয়েছেন।
উপজেলার মশাখালী ইউনিয়নের টানপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক আফরোজা বেগম জানান, প্রধান শিক্ষক না থাকায় আমাকে প্রধান শিক্ষকের অরিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। ফলে অনেক সময় বিদ্যালয়ের কাজে আমাকে উপজেলা সদরে থাকার দরুণ পাঠদান অনেকটাই ব্যাহত হয়।
আউলাজুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক সুমাইয়া সুলতানা বলেন, আমাদের বিদ্যালয়ে ৬ শিক্ষকের স’লে প্রধান শিক্ষকসহ ৪জন শিক্ষক কর্মরত রয়েছেন। এ অবস্থায় প্রধান শিক্ষক যেদিন বিদ্যালয়ের কাজে বাইরে থাকেন সেদিন ৩জন শিক্ষকের পক্ষে সকল ক্লাস চালানো কঠিন হয়ে পড়ে।
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, প্রতিটি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদটি গুরুত্বপূর্ন। আর সহকারি শিক্ষকরা হলেন বিদ্যালয়ের প্রাণ। যে সকল বিদ্যালয়ে প্রধান ও সহকারি শিক্ষকদের শূন্য রয়েছে তা বের করে একটি তালিকা যথাযথ কতৃপক্ষের কাছে পাঠানে হয়েছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৪৮ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১১, ২০১৬