| রাত ১০:৩৬ - বুধবার - ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ - ১৭ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

বিয়ের বাজার করতে এসে লাশ হয়ে ঘরে ফিরল আনন্দ মোহনের ছাত্র

ঈশ্বরগঞ্জ প্রতিনিধি,৯ জানুয়ারি ২০১৬ঃ 
আগামী ২৯ জানুয়ারী ইমরানের বিয়ের দিন ধার্য্য করা হয় কিশোরগঞ্জ জেলার নীলগঞ্জের মইনন্দন গ্রামের ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল হুদার মেয়ের সাথে। কিন্তু বিয়ের বাজার করতে এসে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরতে হলো আনন্দ মোহন কলেজের বিবিএ দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র সৈয়দ তরিকুল ইসলাম ইমরানের (২৪)। শুক্রবার রাত ১০ টার দিকে আঠারবাড়ী-ঈশ্বরগঞ্জ সড়কের মৃগালী নামক স্থানে মাহেন্দ্র ও ট্রাক্টরের সংঘর্ষে মাহেন্দ্রর যাত্রী ইমরান গুরুতর আহত হয়। পরে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার পথে তার মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঈশ্বরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. বোরহান উদ্দিন।
জানা যায়, নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলার ফতেপুর গ্রামের মৃত সৈয়দ তাজুল ইসলামের ছেলে সৈয়দ তরিকুল ইসলাম ইমরানের সাথে কয়েক দিন আগে বিয়ে ঠিক হয় কিশোরগঞ্জের নীলগঞ্জের মইনন্দন গ্রামের ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল হুদার মেয়ের। আগামী ২৯ জানুয়ারি ইমরানের বিয়ের দিন ধার্য্য হয়। সে জন্য ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজের বিবিএ দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ইমরান মামার বাড়ি কেন্দুয়ার শ্রীলংপুর থেকে ভগ্নিপতি ইয়াছিন চৌধুরীকে নিয়ে ময়মনসিংহে বিয়ের বাজার করতে যাচ্ছিলেন। তারা আঠারবাড়ী থেকে মাহেন্দ্র যোগে ময়মনসিংহের উদ্দেশ্যে ঈশ্বরগঞ্জে আসার পথে মৃগালী নামক স্থানে একটি ট্রাক্টরের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে গুরুতর আহত হয় ইমরান ও তার ভগ্নিপতি। গুরুতর অবস্থায় ইমরানকে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:০৫ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ০৯, ২০১৬