| দুপুর ১:৫৬ - রবিবার - ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৬ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

নান্দাইলে সংখ্যালঘুর উপর ৮ দিনে দু’দফা হামলা: আহত ২ জন

ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি,৯ জানুয়ারি ২০১৬ঃ  ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার জাহাঙ্গীরপুর ইউনিয়নের রায়পাশা গ্রামের অমল কুমার রায়ের পরিবারের লোকদের উপর গত ৮ দিনে দু’দফা সন্ত্রাসী হামলায়  অমল ,রঞ্জিত গুরুতর আহত হয়।  মামলা করায় পরিবারটি এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে এবং পরিবারের লোকজন বাড়ী থেকে বের হতে পারছেনা।

থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায় শনিবার (০৯ জানুয়ারী ) সকাল  আনুমানিক ১১  টার রায়পাশা গ্রামের মৃত সুধীর চন্দ্র রায়ের পুত্র রঞ্জিত কুমার রায় (৫২) ভটপুর বাজার হতে বাড়ী আসার পথে একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ রঞ্জিত রায়ের উপর হামলা চালিয়ে তার সাথে থাকা জমি বন্ধকীর ৪০ হাজার টাকা নিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় পুলিশের সহায়তায় প্রথমে আহত রঞ্জিতকে নান্দাইল হাসপাতালে নেয়া হলে অবস্থা আশংক জনক হলে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রের্ফাড করে। এর পূর্বে কিশোরগঞ্জ গ্রীণ লীফ এগ্রো কোম্পানীতে কর্মরত রায়পাশা গ্রামের বাসিন্দা আহত রঞ্জিত রায়ের ছোট ভাই অমর কুমার রায় (৩৬)কে একই গ্রামের ওয়ারেছ উদ্দিনের নেতৃত্বে হাইকুল.লিমন, জাহাঙ্গীর মিয়া, সাদির মিয়া, ওয়াহিদ মিয়া সহ একদল সন্ত্রাসী গত ৩১ ডিসেম্বর/১৫ আনুমানিক দুপুর ২.৩০ মিঃ সন্ত্রাসীদের বাড়ীর পাশের রাস্তা  দিয়ে কিশোরগঞ্জ কর্মস্থালে যাওয়ার পথে এলাপাতারীভাবেকুপিয়ে মারাত্নক জখম করে এবং তার সাথে থাকা মোবাইল সেট ও নগদটাকা নিয়ে যায়। আহত অবস্থায় তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।অমর কুমার রায়ের উপর হামলার ঘটনা নান্দাইল থানায় মামলা নং-০৩(১)/১৬ ধারা-১৪৩/১৪৮/৩২৩/৩২৫/৩০৭/৩৭৯/১১৪ বাঃ দঃ বিঃ।

এব্যাপারে নান্দাইল মডেল থানায়  অমল কুমার রায় বাদী হয়ে  মামলা করার পর বেপরোয়া হয়ে উঠে হামলাকারীরা। প্রকাশ্যে দেশীয় অস্ত্রনিয়ে মহড়া দিচ্ছে ওই সন্ত্রাসীরা। সরেজমিনে এলাকায় গেলে জানা যায় ,সুধীর চন্দ্র রায়ের নাতী পিংকী রায় খুররম খান চৌধুরী কলেজে একাদশ শ্রেণীতে পড়লেও সন্ত্রাসীদের ভয়ে কলেজে যেতে পারছেনা। যে কোন সময় সংখ্যালঘু পরিবারের সদস্যরা হামলা আবারো হামলার স্বীকার হতে পারেন বলে আশংকা করছেন পরিবারের লোকজন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৫৫ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ০৯, ২০১৬