| সকাল ১০:৫৪ - শনিবার - ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ৮ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

বিকল্প খোলা রেখেছে আওয়ামী লীগ-বিএনপি

অনলাইন ডেস্ক | ৩ জানুয়ারি ২০১৬, রবিবার,

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুমতি না পেলে বিকল্পস্থানে সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুমতি না পেলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে সমাবেশ করবে আওয়ামী লীগ। ঢাকার অন্য ১৭টি স্পটে কর্মসূচি বহাল থাকবে। আজ আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর ধানমন্ডি কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।
ওদিকে, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুমতি না পেলে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশের অনুমতি চেয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাছে চিঠি পাঠিয়েছে বিএনপি। নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, ৫ জানুয়ারি ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভার ঘোষণা দেওয়ার পরই আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও সমাবেশের ঘোষণা দেওয়া হয়। তারা সংঘাত ও উত্তাপ ছড়ানো উদ্দেশ্যেই এ সমাবেশ ডেকেছে। যাতে এ সংঘাতের সৃষ্টি না হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে প্রশাসনের উদ্দেশে তিনি বলেন, সোহরাওয়র্দীতে না হোক, অন্তত নয়াপল্টনে সমাবেশ করার অনুমতি দিন।
রিজভী আরও বলেন, বিএনপির জনসভা করা রাজনৈতিক অধিকার। রাজনীতি করার অধিকার কোনো অন্যায় আবদার নয়। আমরা নিয়মতান্ত্রিকভাবে সোহরাওয়ার্দীতে জনসভা করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু একই সময়ে সরকারদল সংঘাত সৃষ্টির জন্য জনসভা ডেকেছে। তাই আমরা সংঘাত এড়াতে নয়াপল্টনে জনসভা করার অনুমতি চেয়ে চিঠি দিয়েছি।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:৫২ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ০৩, ২০১৬