| রাত ৮:৫৬ - বুধবার - ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ - ১৭ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

কিশোরগঞ্জে সিপিবি প্রার্থীর ইশতেহারে নয় অঙ্গীকার

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৫, শনিবার,
কিশোরগঞ্জ পৌরসভায় সিপিবির মেয়র প্রার্থী মো. আবুল হাসেম তার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন। শনিবার সকালে জেলা সিপিবি কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই ইশতেহার ঘোষণা করেন। ইশতেহারে কিশোরগঞ্জ পৌরসভাকে একবিংশ শতাব্দীর জ্ঞান-বিজ্ঞান মনষ্ক চিনত্মা ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধে বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মের সামনে একটি মডেল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তোলাসহ ৯ দফা অঙ্গীকার তুলে ধরা হয়েছে। এগুলো হলো লুটপাট, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি বন্ধ করে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতামূলক পৌর প্রশাসন গড়ে তুলে পৌরকর বৃদ্ধি না করে সেবার মান নিশ্চিত করা। উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস’ার আধুনিকায়ন ও রাসত্মাঘাট উন্নয়ন এবং জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধান করা। নরসুন্দা নদীকে বর্জ্যমুক্ত করা। তৃণমূল পর্যায়ে সমন্বিত স্বাস’্যসেবা প্রদানের লড়্গ্যে প্রতি ওয়ার্ডে নগর স্বাস’্য কেন্দ্রের উপ-কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করা। পৌর মার্কেটসহ পৌরসভার সম্পত্তিতে আধুনিক বহুতল মার্কেট নির্মাণ করে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, হকার ও বেকার যুবকদের মধ্যে বরাদ্দ প্রদান করা। হরিজন ও রবিদাস পলস্নীতে আধুনিক বহুতল ভবন নির্মাণ করা এবং রবিদাস সমপ্রদায়ের জন্য একটি কবরস্থানের ব্যবস্থা করা। মাদকমুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করা। শিশুদের বিনোদনের জন্য খেলার মাঠ ও পার্ক নির্মাণ এবং বৃক্ষরোপন করে সবুজ শহর গড়ে তোলা। শহরের অটোরিকসা ও রিকসা স্ট্যান্ড এবং লেবার ছাউনি নির্মাণ করা। পৌরসভার অর্থায়নে নৈশকালীন স্কুল স’াপন করে ঝরে পড়া গরিব মেহনতি শ্রমজীবী মানুষের শিশুদের শিক্ষা ও মেধাবী সনত্মানদের বৃত্তির ব্যবস’া করা ইত্যাদি। ইশতেহার ঘোষণার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মেয়র প্রার্থী মো. আবুল হাসেম জানান, এখন পর্যনত্ম সদর পৌর এলাকায় সামগ্রিক নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু ও শানিত্মপূর্ণ রয়েছে। তবে বড় দলগুলোর পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশন নির্ধারিত অঙ্কের চেয়েও বেশি অর্থ খরচ করা হচ্ছে। নির্বাচনের দিন পর্যন্ত যেন শানিত্মপূর্ণ পরিবেশ অব্যাহত থাকে এবং ভোটারগণ নির্বিঘ্নে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন প্রশাসনের প্রতি তিনি এই দাবি জানান। ইশতেহার ঘোষণা অনুষ্ঠানে জেলা সিপিবির সাধারণ সম্পাদক ও প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট অ্যাডভোকেট এনামুল হক, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক জেলা বাসদ সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম, সম্পাদক ম-লির সদস্য রফিউল আলম চৌধুরী মিলাদ, নূরম্নল হুদা দুলাল, আব্দুর রহমন রম্নমি, সদস্য সিরাজুল ইসলাম সাত্তার, জেলা ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি রাজিব বণিক প্রমুখ উপসি’ত ছিলেন। উলেস্নখ্য কিশোরগঞ্জ পৌরসভায় তিনজন প্রার্থী মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত মো. পারভেজ মিয়া, বিএনপি মনোনীত মাজহারম্নল ইসলাম এবং সিপিবি মনোনীত মো. আবুল হাসেম।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৪২ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ২৬, ২০১৫