| সকাল ৮:১২ - সোমবার - ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

বিভাগ হওয়ায় বিজয় ও আনন্দ র‌্যালীতে মির্জা আজম ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের কাজ আগামী ৩ মাসের মধ্যে শুরু হবে

স্টাফ রিপোর্টার,১৮ অক্টোবর ২০১৫, রবিবারঃ  ময়মনসিংহ বিভাগ বাস্তবায়ন করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে রবিবার বিজয়, বিশাল আনন্দ র‌্যালীর আয়োজন করে জেলা নাগরিক আন্দোলন। এসময় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পাট ও বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী মীর্জা আজম এমপি বলেন, আগামী তিন মাসের মধ্যে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের কাজ শুরু হবে। তিনি বলেন, ভারতের অর্থায়নে ব্রহ্মপূত্র নদ খনন করে নৌ চলাচলের পরিবেশ সৃষ্টি এবং ভারত থেকে স্টিমার যোগে মালামাল পরিবহনের পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে। খুব শিগগির ময়মনসিংহে অর্থনৈতিক জোন, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজকে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, শিক্ষা বোর্ডসহ অন্যান্য কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করা হবে।
ময়মনসিংহ বিভাগ বাস্তবায়ন করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে মীর্জা আজম আরো বলেন, বিভাগ বাস্তবায়নের ব্যাপারে আমাদের কৃতিসন্তান প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন।
আনন্দ র‌্যালীর পূর্বে জেলা নাগরিক আন্দোলনের সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান খানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নূরুল আমীন কালামের পরিচালনায় টাউন হল শহীদ মিনার চত্বরে এক সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট প্রমোদ মানকিন, সালাহ উদ্দিন আহমেদ মুক্তি এমপি, জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী, বার কাউন্সিলের সদস্য অ্যাডভোকেট জাহিদ আনোয়ার, এফবিসিসিআই পরিচালক আমিনুল হক শামীম, মজিবুর রহমান খান মিল্কী, ফয়জুর রহমান ফকির, অধ্যাপক আতিকুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন, খান এ আলম খান (নেত্রকোণা), অ্যাডভোকেট এমদাদুল হক মিল্লাত, অ্যাডভোকেট সাদেক খান মিল্কী টজু, কাজী রানা, অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, কাজী আজাদ জাহান শামীম, রকিবুল ইসলাম রকিব প্রমূখ।
টাউন মিনার চত্বর থেকে বর্নাঢ্য র‌্যালীটি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে ষ্টেশন চত্বরে এসে শেষ হয়। আনন্দ র‌্যালী চলাকালে হাজার হাজার মানুষ সড়কের দু’আশে দাঁড়িয়ে বর্নাঢ্য বিজয় ও আনন্দ র‌্যালীটিকে সমর্থন জানান।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:২৬ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১৮, ২০১৫