| সকাল ৬:৩৬ - সোমবার - ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

মিনায় গৌরীপুরের এক হাজির মৃত্যু বাড়িতে শোকের মাতম

সাজ্জাতুল ইসলাম সাজ্জাত, গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) থেকে
সৌদি আরবের মিনায় ময়নসিংহের গৌরীপুরে আবুল হাশিম মাষ্টার (৬০) নামে এক হাজির মৃত্যু হয়েছে। সৌদি আরবের মিনায় ‘শয়তান স-ম্ভে’ পাথর ছোঁড়া শেষে ফেরার পথে বৃহষ্পতিবার বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টার দিকে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান। তিনি উপজেলার মাওহা ইউনিয়নের রামকৃষ্ণপুর গ্রামের বাসিন্দা। দীর্ঘ দিন ধরে তিনি পরিবার পরিজন নিয়ে গৌরীপুর পৌর শহরের কালিপুর মধ্যতরফ (ছয়গন্ডা) এলাকায় নিজ বসায় বসবাস করছিলেন। তিনি রামকৃষ্ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত সহকারি শিৰক ছিলেন। নিহত আবুল হাশিম মাস্টারের ছেলে মোঃ ফারম্নক হোসেন তার বাবার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, তার বাবা হজের যাবতীয় কাজ সম্পূর্ণ করে মিনায় আসার পথে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়াবন্ধ হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তাদের বাড়িতে চলছে এখন শোকের মাতম। এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। স্বজনদের আহাজারিতে স্বব্ধ হয়ে গেছে পুরো এলাকা। আত্মীয়-স্বজনরা খবর পেয়ে বাড়িতে এসে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ছেন।
পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, নিহত হাজি আবুল হাশিম এর তার হাজী শনাক্তকরণ নম্বর ১৩৪০২৮০। আর পাসপোর্ট নম্বর বিই ০২৭৪৯৪১। তিনি তিন ছেলে ও চার মেয়ের জনক ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী সনৱান ও আত্মীয়-স্বজনসহ বহু গুণাগ্রাহী রেখে গেছেন। রমকৃষ্ণপুর গ্রামের বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে, সেখানে বিলীন ঈদের আনন্দ। গোটা পরিবেশজুড়ে থমথমে ভাব। উৎকন্ঠা আর উদ্বেগের চাদরে ঘিরে রেখেছে গোটা মহলস্নার পরিবেশ। কান্না আর আহাজারিতে সৃষ্টি হয়েছে শ্বাসরম্নদ্ধকর পরিসি’তি।
নিহত হাজি আবুল হাশিম মাস্টারের হজসঙ্গী প্রতিবেশী এডভোকেট নূর মোহাম্মদ ফকির প্রথমে ফোনে তার মৃত্যুর খবরটি পরিবারের সদস্য সহ অন্যদের জানান। তিনি বলেন, এতবড় দুর্ঘটনার পর মিনায় বিরাজ করছে চরম ভীতিকর পরিবেশ। মসজিদুল হারামে মরহুমের জানাযার নামাজ শেষে মক্কায় জান্নাতুল মোয়ালস্নায় তার দাফন সম্পন্ন হয়েছে।
পৌর সভার কাউন্সিলর প্রতিবেশী মোঃ সাদেকুর রহমান বলেন, আমাদের স্মৃতিতে চির অমস্নান হয়ে থাকবেন যে বিদায়ী মানুষটি নিহত হাজি আবুল হাশিম খুব ভাল লোক ছিলেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:২১ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৫