| সকাল ৭:৪৪ - শনিবার - ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১০ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতির হুমকি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের

অনলাইন ডেস্ক,  ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৫, মঙ্গলবার

স্বতন্ত্র বেতন স্কেলের দাবি পূরণ না হলে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতির ঘোষণা দিয়েছেন সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। আজ পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার পর্যন্ত প্রতিবাদী কর্মসূচি পালন করেছেন তারা। কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে শিক্ষক প্রতিনিধিরা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন স্কেল না হলে তারা অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে যেতে বাধ্য হবেন। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ি আজ সারা দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাশ পরীক্ষা বন্ধ ছিল। ফেডারেশন অব বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি টিচার্স এসোসিয়েশন এর মহাসচিব প্রফেসর মাকসুদ কামাল বলেন, শিক্ষকরা স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো আশা করছেন। এ দাবি পূরণ না হলে আমরা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটে যেতে বাধ্য হবো। ঘোষিত পে স্কেল অসামঞ্জস্যপূর্ণ বলে দাবি করেন তিনি।
দুমকি (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি জানান, অষ্টম পে-স্কেলে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের অবমূল্যায়নের প্রতিবাদ এবং স্বতন্ত্র পে-স্কেল ঘোষণার দাবিতে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারশনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) মঙ্গলবার পূর্নদিবস কর্মবিরতি ও র‌্যালি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের সম্মুখ থেকে একটি র‌্যালি বের হয়ে ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে গিয়ে শেষ হয়। পরে একাডেমিক ভবনের সামনে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তৃতা করেন সিনিয়র শিক্ষক প্রফেসর ড. মো. হারুনর রশীদ, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের ডিন প্রফেসর আ.ক.ম মোস্তফা জামান, রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. সুলতান মাহমুদ, পোস্টগ্রাজুয়েট স্টাডিজের ডিন প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত, জেনেটিক্স বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবুল কাশেম চৌধুরী, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর মোহাম্মদ আলী, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর জেহাদ পারভেজ প্রমুখ। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল স্তরের শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন। মঙ্গলবার শিক্ষকদের পূর্নদিবস কর্মবিরতির ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল অনুষদের ক্লাস, পরীক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ছিল।
রাবি প্রতিনিধি জানান, অষ্টম জাতীয় পে-স্কেলে বিশ্ববিদালয় শিক্ষকদের অবমূল্যায়নের প্রতিবাদে ও শিক্ষকদের স্বতন্ত্র বেতন কাঠামোর দাবিতে র‌্যালি ও পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শিক্ষক সমিতি। গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনের সামনে থেকে র‌্যালিটি শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের প্রধান সড়ক ও ভবন প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় সেখানে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালির পূর্বে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, ‘পে-কমিশন রিপোর্ট তৈরীর সঙ্গে জড়িত সচিবগণ অপকৌশল করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের মর্যাদার অবনমন করার চেষ্টা করছেন। তারা এতে বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপকদের বেতন স্কেল সচিবদের দুইধাপ নিচে নামিয়ে এনেছে। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের স্বতন্ত্র বেতন কাঠামোর দাবিকে অগ্রাহ্য করেছে। তিনি আরও বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আমরা আমাদের দাবি আদায়ের জন্য আন্দেলন করে যাচ্ছি। কিন্তু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তেমন কোন সাড়া দিচ্ছে না। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা চাইলে দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়কে অচল করে দিতে পারেন বলে হুমকি দেন তিনি। এসময় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের দাবি না মানা হলে আগামীতে লাগাতার কর্মসূচির হুমকিও দেয়া হয়।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:৪২ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৮, ২০১৫