| বিকাল ৩:৪০ - শনিবার - ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’ এবার পূর্ব আফ্রিকার উগান্ডায়

অনলাইন  ডেস্ক: | ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫, শুক্রবার,

ঈদের জনপ্রিয় অনুষ্ঠান চ্যানেল আই এর ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’ এই প্রথমবারের মতো ধারণ করা হলো দেশের বাইরে। বিচিত্র মানুষ, বিচিত্র জীবনধারাকে গুরুত্ব দিয়ে পূর্ব আফ্রিকার নাতিশীতোষ্ণ জলবায়ুর দেশ উগান্ডার কৃষক কৃষানীরা অংশ নিয়েছেন কয়েকটি মজার প্রতিযোগিতায়। কৃষি উন্নয়ন ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব শাইখ সিরাজ চলমান বিশ্ব বাস্তবতায় কৃষি ও পুষ্টির বর্তমান পরিস্থিতিকে গুরুত্ব দিয়ে উগান্ডার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে এম বারারা জেলার কাবোহে নামক এলাকার একটি মাঠে করেন ওই আয়োজন। এ উপলক্ষে সেখানে উপস্থিত হন এলাকার বহু সংখ্যক কৃষক-কৃষাণী। তারা অংশ নেন বালিশ লড়াই, কমলা শাসযুক্ত মিষ্টি আলুর গুড়া থেকে আয়রন বিন খোঁজা, মা ও ছেলের আয়রন বিন দৌড় ও তৈলাক্ত কলাগাছে ওঠা। উল্লে¬খ্য যে, উগান্ডাবাসীর প্রধান খাদ্য কলা, বিন ও মিষ্টি আলু। বর্তমানে সেখানে বায়োফর্টিফিকেশনের মাধ্যমে বিনকে আয়রন সমৃদ্ধ করা হয়েছে। সেগুলোর জনপ্রিয়তাও বেশ। একইভাবে কমলা শ্বাসযুক্ত মিষ্টি আলু চাষ ও খাদ্য হিসেবে ব্যবহারে কৃষককে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। ওই বর্ণাঢ্য আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় প্রভাবশালী জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে কৃষি সংশ্লি¬ষ্ট প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা পর্যন্ত। অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে তারা জানিয়েছেন, কৃষি প্রযুক্তি সম্প্রসারণ ও কৃষককে উৎসাহিত করতে ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’-এর মতো আয়োজন সত্যিই অনবদ্য। তারা তাদের কৃষি আবাদি এলাকাগুলোতে এ ধরণের আয়োজন বিশেষ বিশেষ দিনে চালু করার কথাও জানান। ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’ উপলক্ষে উগান্ডার প্রত্যন্ত এলাকার এক কৃষি ক্লাবের কৃষক পরিবারের তরুণী সদস্যরা বাংলা গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করে। এদিকে কৃষকের ঈদ আনন্দ অনুষ্ঠানে এবার উগান্ডার বিভিন্ন এলাকা থেকে তুলে আনা হয়েছে বিচিত্র ও চিত্তাকর্ষক তথ্যচিত্র। যা দর্শকদেরকে অবাক করবে। এবার কৃষকের ঈদ আনন্দের আরেকটি অংশের আয়োজন ঢাকার ঐতিহ্যবাহী নবাবগঞ্জ উপজেলার চুরাইন মাঠে। ঢাকার নিকটতম কৃষি নির্ভর জনপদ নবাবগঞ্জ। কৃষি ও প্রাণ বৈচিত্রের বিশাল ভান্ডার রয়েছে সেখানে। সে সঙ্গে রয়েছে ঐতিহাসিক অনেক স্মৃতি ও প্রসিদ্ধ স্থান। ওই এলাকার কৃষকদের নিয়ে এবার আয়োজন করা হয় কৃষকের ঈদ আনন্দের কয়েকটি খেলাধুলা। এর মধ্যে ছিল বালিশ লড়াই, শিশুদের উল্টো দৌড়, আটা থেকে জিংকসমৃদ্ধ ধান খোঁজা, বিপরীতমুখি দৌড় ও তৈলাক্ত কলাগাছে ওঠা। এসব খেলাধুলার পাশাপাশি এবারও কৃষকের ঈদ আনন্দের অনন্য আকর্ষণ হিসেবে থাকছে নবাবগঞ্জ ও তার সংলগ্ন মুন্সিগঞ্জ বিক্রমপুর এলাকার ঐতিহাসিক ও অজানা কিছু বিষয় নিয়ে প্রামাণ্য প্রতিবেদন।
এবারের কৃষকের ঈদ আনন্দ প্রচার হবে ঈদুল আযহার দ্বিতীয় দিন বিকেল সাড়ে চারটায়।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৩৯ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৪, ২০১৫