| ভোর ৫:৫২ - শুক্রবার - ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সরিষাবাড়ী আওয়ামী লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদিক সম্মেলন

 

জামালপুর প্রতিনিধি,: ০২ আগস্ট ২০১৫, রোববার,
জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জনপ্রিয় রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব ছানোয়ার হোসেন বাদশার বিরুদ্ধে দৈনিক যুগান্তর পত্রিকায় মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন, কাল্পনিক, উদ্যেশ্যে প্রনোদিত ও মনগড়া সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগ। আজ জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা অভিযোগ করে বলেন, তার বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের ধারাবাহিকতা বিতর্কিত করে মহল বিশেষকে খুশি করার জন্য গত ২৯ জুলাই দৈনিক যুগান-রে একটি সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। যা বাস-বতার সাথে কোন মিল নেই। তিনি বলেন, সংবাদে টিআর, জিআর, কাবিখা সম্পর্কে যেসব তথ্য উপস’াপন করা হয়েছে তা সঠিক নয়। কারন স’ানীয় সংসদ সদস্য’র সাথে নির্বাচন কেন্দ্রীক সম্পর্কের অবনতি থাকায় টিআর, জিআর সম্পর্কে তার কোন সংশ্লিষ্টতা থাকার প্রশ্নই আসে না। সংবাদে পরিবহনে চাঁদাবাজির কথা উল্লেখ করা হলেও প্রকৃত পক্ষে তা আদ্য সত্য নয়। কারণ ট্রাক মালিক সমিতি ও পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাথে তার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। সংবাদে বিশাল মার্কেট হিসেবে যেটিকে উল্লেখ করা হয়েছে সেটি মাত্র ১৩শ স্কয়ার ফুটের একটি মার্কেট। যার নির্মাণ কাজ ২০১২ সালে শুরু হয় এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হবার পূর্বেই সমাপ্ত করা হয়েছে। সংবাদে উল্লেখিত বাড়ীটির নির্মাণ কাজ ১৯৮৮ সালে ৩ তলা ফাউন্ডেশন দিয়ে শুরু করা হয়েছে। যার দ্বিতল ভবনের কাজ দীর্ঘদিন পরে শুরু করা হয়েছে। প্রকাশিত সংবাদে যে গাড়ীর কথা উল্লেখ করা হয়েছে সেটি পূবালী ব্যাংক লিমিটেড, বনশ্রী শাখা, রামপুরা থেকে নেয়া ঋণের টাকায় ক্রয় করা হয়েছে। একজন ব্যবসায়ী হিসেবে অর্জিত বৈধ আয় থেকে সম্পদ করা স্বাভাবিক নিয়ম এবং সাংসারিক জীবনে চলমান প্রক্রিয়া মাত্র। যমুনা সারকারখানার তরল এ্যামোনিয়া গ্যাস লাইসেন্সের মাধ্যমে নিয়মিত উত্তোলন এবং যথাযথ নিয়ম অনুযায়ী বাজারজাত করা হয়ে থাকে। এখানে কোন অনিয়ম করার সুযোগ নাই।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যানোর মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব বিষয়ক সম্পাদক মনজুরুল ইসলাম লানজু, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবম জাফর ইকবাল জাফু, সানাউল হক জ্যোতি, সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা আব্দুল গনি, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নাঈম রহমান, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আসাদুজ্জামান আকন্দ বাবু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছানোয়ার হোসেন ছানু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ফারহান আহমেদ প্রমূখ।
সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ ছানোয়ার হোসেন বাদশার বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে সাংবাদিকদের বস’নিষ্ট সংবাদ পরিবেশন করার আহবান জানান। পাশাপাশি তিনি প্রকৃত দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে সংবাদ পরিবেশনের আহবান জানান।
সংবাদ সম্মেলনে ছানোয়ার হোসেন বাদশা বলেন, তিনি রাজনৈতিক জীবনে শুধুমাত্র রাজনীতির কারনে ১১ বার কারাবরণ করেছেন। তিনি পোগলদীঘা ইউনিয়নের তৎকালীন ৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হবার মাধ্যমে ছাত্র রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। এরপর পোগলদীঘা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি হন, কেন্দুয়ায় বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে অধ্যায়নকালে ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৭৮ সালে সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজ ছাত্র সংসদের সহ- আপ্যায়ন ও প্রমোদ সম্পাদক নির্বাচিত হন। একই বছর তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দুয়া সাংগঠনিক থানা শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। তিনি ১৯৮৩ সাল থেকে ১৯৮৫ সাল পর্যন- বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জামালপুর জেলার আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে যোগ্য নেতৃত্বের কারনে ১৯৮৫ সাল থেকে ১৯৮৮ সাল পর্যন- বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জামালপুর জেলা শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যকরী সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৮৬ থেকে ১৯৯০ সালে স্বৈরাচার এরশাদ হঠাও আন্দোলনে সর্বদলীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ জামালপুর জেলা শাখার আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেন। এর ১৯৯১ থেকে ১৯৯৩ সাল পর্যন- বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ সরিষাবাড়ী উপজেলা শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে তিনি জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর তিনি প্রায় ২০ বছর সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।
এমএসএস পাশ ছানোয়ার হোসেন বাদশা ছাত্র জীবন থেকেই সাংবাদিকতার সাথে জড়িত রয়েছেন। জীবনের শুরুতে তিনি বাংলার বাণীসহ বিভিন্ন পত্রিকায় কাজ করেছেন। বর্তমানে দৈনিক জনবাংলা ও সাপ্তাহিক জনক পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় ও সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। ছানোয়ার হোসেন বাদশার রাজনৈতিক সফলতায় একটি মহল ঈর্ষান্বিত হয়ে নানা অপপ্রচারে লিপ্ত। ওই মহলটি তাকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করতে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করেছে। তিনি প্রকাশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানান এবং ভবিষতে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ ও প্রচার থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানান।#

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:৪৯ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০২, ২০১৫