| ভোর ৫:৪০ - শুক্রবার - ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

গফরগাঁওয়ে হাত-পা বেঁধে কিশোরীকে গণধর্ষণ মামলা দায়ের, আটক-১

আজহারুল হক, গফরগাঁও:  ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে এক কিশোরীকে (১৩) গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে। পরে ধর্ষিত কিশোরীর মা রাশেদা বেগম বাদী হয়ে তিন ধর্ষককে আসামী করে গফরগাঁও থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই কিশোরীকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল ১০টার দিকে গফরগাঁও সার্কেলের সিনিয়র এএসপি বিল্লাল হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ধর্ষণকারীদের ধরতে অভিযান চলিয়ে জিজ্ঞাসাদের জন্য একজনকে আটক করে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বারবাড়িয়া ইউনিয়নের পাকাটি গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িতে গৃহপরিচারিকার কাজ করত ওই কিশোরী। তার বাড়ি পার্শ্ববর্তী বাড়া গ্রামে। গত শুক্রবার দুপুরে পাকাটি গ্রামের মৃত রঞ্জিতের ছেলে মাদকাসক্ত দীলিপ(২২), চারিপাড়া গ্রামের দুলালের ছেলে হৃদয়(১৯) ও মাইজহাটি গ্রামের হাফিজ উদ্দিনের ছেলে দুই সন্তানের জনক আসাদুল ওরফে আসুসহ(২৬) গাছ কেনার অজুহাতে আব্দুর রাজ্জাকের বাড়ি যায়। আব্দুর রাজ্জাক গাছ বিক্রি করবেন না জানিয়ে তাদের চলে যেতে বলে তিনি জুমার নামাজ পড়তে মসজিদে যান। এসময় গৃহকর্তী আনোয়ারা বেগমও নিজের চিকিৎসার জন্য ডাক্তার দেখাতে গফরগাঁও হাসপাতালে আসেন। এ সুযোগে গাছ কেনার অজুহাতে আসা ওই তিন জন ঘরে গিয়ে ওই কিশোরীকে একা পেয়ে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে কিশোরীর চিৎকারে প্রতিবেশি এক গৃহবধূ এগিয়ে এলে ধর্ষণকারীরা পালিয়ে যায়।
গৃহকত্রী আনোয়ারা বেগম দৈনিক লোক লোকান্তরকে বলেন, মেয়েটি আমাদের বাড়িতে ৭বছর যাবত কাজ করছে। পাষণ্ডরা পশুর মত অত্যাচার মেয়েটি আজ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কাতরাচ্ছে।
আব্দুর রাজ্জাক মাষ্টারের ছোট ভাইয়ের স্ত্রী শাহনাজ বেগম রিক্তা বলেন, ধর্ষণকারীদের পাশাবিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ওই কিশোরী চিৎকার শুরু করে। পরে আমি এগিয়ে গেলে ধর্ষকরা আমার সামনে দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।
গফরগাঁও সার্কেলের সিনিয়র এএসপি বিল্লাহ হোসেন দৈনিক লোক লোকান্তরকে বলেন, ধর্ষক দীলিপের পাসর্পোট তার বন্ধু রতনের কাছে থাকার খবর জেনে জিজ্ঞাসাবাদের তাঁকে আটক থানা আনা হয়েছে।
গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ওবায়দা খান দৈনিক লোক লোকান্তরকে বলেন, এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা রাশেদা বেগম বাদী হয়ে গফরগাঁও থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। আসামী গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:২৫ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০১, ২০১৫