| ভোর ৫:১৫ - শুক্রবার - ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

রহস্যময়: ৫,০০০ বছরের প্রাচীন বাড়িতে ১০০ দেহাবশেষ

অনলাইন ডেস্ক | ১ আগস্ট ২০১৫, শনিবার,

চীনে ৫,০০০ বছরের প্রাচীন একটি বাড়ির ভেতর থেকে প্রায় ১০০ জনের দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে। মাত্র ২০ বর্গমিটার জায়গার মধ্যে গাদাগাদি ও স্তূপীকৃত অবস্থার মধ্যে পাওয়া গেছে দেহাবশেষগুলো। সুনির্দিষ্টভাবে, নারী, পুরুষ ও শিশুসহ মোট ৯৭ জনের বিকৃত দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গেছে। এতোজন পূর্ণবয়স্ক ও শিশু কেন বাড়িটিতে এভাবে অবস্থান নিয়েছিলো এবং কিভাবে তাদের মৃত্যু হয়েছিল, তা বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছে বিশেষজ্ঞদের মনে। রহস্যের জাল এখনও পুরোপুরি ভেদ করতে পারেননি তারা। এ খবর দিয়েছে বৃটেনভিত্তিক অনলাইন মেট্রো। চীনের জিলিন ইউনিভার্সিটির প্রতœতত্ত্ববিদরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন, বিশেষ কোন মহামারী বা কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে তাদের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। প্রতœতত্ত্ববিদদের দলটি মনে করছে, প্রাচীনকালে গ্রামে যখন মহামারীর কারণে মড়ক দেখা দিতো, তখন খুব অল্প সময়ের মধ্যে একসঙ্গে বহু মানুষ মারা যেতেন। ফলে, তাদের সমাধিস্থ করা সম্ভব হতো না। কখনও কখনও এক জায়গায় মৃতদেহগুলোকে জড়ো করে রাখা হতো। প্রাচীন বাড়িটিতে পাওয়া ওই নারী, পুরুষ ও শিশুদের ক্ষেত্রেও তেমনটা ঘটেছিল বলে মনে করছেন তারা। গত ৫ সহস্রাব্দের কোন এক সময় বাড়িটি আগুনে ভস্মীভূত হয়। ফলে, মৃতদেহগুলো পুড়ে কয়লায় পরিণত হয় এবং ছাদটি দেহাবশেষের স্তূপের ওপর ধসে পড়ে। সে কারণে দেহাবশেষগুলোকে বিকৃত মনে হচ্ছিল। প্রতœতাত্ত্বিক গবেষক দলটির প্রধান ইয়া ওয়েই ঝোউ ও হং ঝু মনে করছেন, ভয়াবহ সংক্রামক কোন মহামারীতেই ওই ৯৭ জন প্রাণ হারিয়েছিলেন। তবে এখনও এ ব্যাপারে তারা পুরোপুরি নিশ্চিত হতে পারেননি।

সর্বশেষ আপডেটঃ ২:৩৪ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০১, ২০১৫