| সকাল ৮:১৯ - সোমবার - ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

করিমগঞ্জে জিডি করায় বিধবার পরিবারের ওপর হামলা, আহত ৭

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি ● ২২ জুন ২০১৫, সোমবার:
কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি করায় প্রতিপড়্গের হামলার শিকার হয়েছে এক বিধবার পরিবার। হামলায় দুই নারীসহ অনত্মত ৭ জন আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে গুরম্নতর আহত হানিফা খাতুন (৫৫), জাহেরা খাতুন (৬২) ও বিলস্নাল হোসেন (২৫) কে সোমবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর আগে সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার উরদিঘী মোকাম বাড়ি এলাকায় প্রতিপড়্গের ২০-২৫ জনের একটি সশস্ত্র দল মৃত আব্দুল জলিলের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় বিধবা পরিবারটির সদস্যদের পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করা ছাড়াও তাদের ৪টি বসতঘর ভাঙচুর ও জিনিসপত্র তছনছ করে হামলাকারীরা। খবর পেয়ে হামলার পর পরই করিমগঞ্জ থানার ওসি (তদনত্ম) আবুল হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস’ল পরিদর্শনে গেলে পরিসি’তি শান্ত হয়।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, মোকাম বাড়ির মৃত আব্দুল জলিলের স্ত্রী হানিফা খাতুনের বাড়ির সীমানায় একটি কাঁঠাল গাছের মালিকানা নিয়ে তার সঙ্গে প্রতিবেশী কাসেম আলীর কিছুদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের জের ধরে রবিবার সকালে কাসেম তার লোকজন নিয়ে বিধবা হানিফা খাতুনের বাড়িতে গিয়ে চড়াও হয়। খবর পেয়ে এলাকাবাসী ঘটনাস’লে গিয়ে তাদের নিবৃত্ত করে। ওইদিন বিকালে হানিফা খাতুন এ ঘটনার উলেস্নখ করে থানায় পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে একটি জিডি (নং-৮৪১) করেন। এতে ড়্গিপ্ত হয়ে সোমবার সকালে ২০-২৫ জনের একটি সশস্ত্র দল নিয়ে কাসেম হানিফা খাতুনের বাড়িতে হামলা চালায়। হামলায় হানিফা খাতুন, জাহেরা খাতুন, বিলস্নাল হোসেন, আলী আকবর (৩৫), হোসেন (৫০), হোসেনের দুই ছোট ভাই কাঞ্চন (২৫) ও রঙ্গু (১৫) আহত হয়।
এ ব্যাপারে করিমগঞ্জ থানার ওসি মো. বজলুর রহমান জানান, হামলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস’ল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস’া নেয়া হচ্ছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৪৬ অপরাহ্ণ | জুন ২২, ২০১৫