| সকাল ৭:১৫ - রবিবার - ৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৩শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

ডাঃ সি এন সরকার চন্দনের ভুল চিকিৎসায় অন্ধ হতে চলেছে স্বপন ঃ ৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবীতে মামলা ঃ সমন জারী

 

স্টাফ রিপোর্টার, ২২ জুন ২০১৫, সোমবার:
অধ্যাপক ডাঃ সি এন সরকার চন্দনের ভুল চিকিৎসায় স্বপন সরকার নামে এক রোগী অন্ধ হওয়ার উপক্রম হওয়ায় ৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবী করে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে রোববার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সাবেক অধ্যক্ষ ও কমিউনিটি বেজড মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডাঃ সি এন সরকারের বিরম্নদ্ধে সমন জারী করেছেন। মামলার বাদী শহরের ২৭ নং দুর্গাবাড়ি রোডের তরুণ বোর্ডিং হোটেলের ম্যানেজার স্বপন সরকার মামলায় উলেস্নখ করেছেন, তিনি অসুস’ হয়ে গত ২১-০৭-২০১৩ ইং তারিখে শহরের দুর্গাবাড়িস’ ডাঃ সিএন সরকারের চেম্বারে চিকিৎসার জন্য যান। ডাঃ সিএন সরকার চন্দন কোন ধরনের যান্ত্রিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করে তার যড়্গা বা টিবি রোগ হয়েছে বলে চিকিৎসাপত্র দেন। চিকিৎসাপত্রে ট্যাবলেট রিনিস্ট্রারিন, রিনিসটা, পিসব ও এনজলিক খেতে দেন। এসকল ঔষধ খাওয়ার পর স্বপন সরকার দুই মাস পর আবারো ২১-০৯-২০১৩ ইং তারিখ ডাঃ সিএন সরকারের দেখা করে ঔষধ খাওয়ার পর নানা সমস্যা হচ্ছে বলে জানান। এরপর ডাক্তার স্বপন সরকারকে কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে বলেন। পরে স্বপন সরকার জানতে পারেন টিবি রোগ হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত না হয়েই তাকে টিবি রোগের চিকিৎসাপত্র দেয়ায় তিনি ধীরে ধীরে অন্ধত্বের দিকে ধাবিত হচ্ছেন। প্রায় অন্ধ হয়ে যান। পরে তার গ্রামের বাড়ি তারাকান্দায় ব্র্যাক সেন্টারে টিবি রোগের চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন। ব্র্যাক চিকিৎসা কেন্দ্রে একাধিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে তাকে জানানো হয়। তার কোনো টিবি রোগ হয়নি। তাকে টিবির ঔষধ খাওয়া বন্ধ করে উন্নত চিকিৎসার পরামর্শ দেন। আবার সিএন সরকারের সাথে দেখা করলে তিনি ভুল চিকিৎসা করেন। পরে তিনি বক্ষব্যাধি ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ নিয়ামুল হকের কাছে যান। বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে তিনি চিকিৎসাপত্রে নোট দেন ভুল ঔষধ খাওয়ার কারণে তার চোখের সমস্যা দেখা দেয়াসহ মৃত্যুর দিকে এগুচ্ছে। ডাঃ নিয়ামুল হক ডাঃ সিএন সরকারের লেখা ঔষধ খাওয়া বন্ধ করার নিদের্শ দেন। সেই সাথে চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সাথে পরামর্শ নিতে নির্দেশ দেন। পরে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের চক্ষু সার্জন ডাঃ কামরম্নল ইসলাম, চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাঃ সাইফুল ইসলাম ও পরববর্তীতে ১৫ জন ডাক্তারের বোর্ড গঠন করলে তারাও সিদ্ধানত্ম দেন ডাঃ সিএন সরকারের ভুল চিকিৎসার জন্য স্বপন অন্ধ হতে চলেছেন। ভারতে চিকিৎসা নিতে গেলে ডাক্তাররা একই কথা বলেন। এনিয়ে ডাঃ সিএন সরকারের সাথে দেন দরবার করে কোন সুরাহ না হওয়ায় গত ১ জানুয়ারি’২০১৫ তারিখ উকিল নোটিশ করেন। এতে কোন উদ্যোগ না নেয়ায় গত ১৮ জুন’১৫ স্বপন সরকার ৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবী ময়মনসিংহ ১ম যুগ্ম জেলা জজ আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত রোববার শুনানী শেষে বিজ্ঞ বিচারক ডাঃ সিএন সরকারের বিরম্নদ্ধে সমন জারী করেন। একাধিক সুত্র জানায় প্রায়ই তিনি নেশাগ্রস্থ থাকেন। কাজেই তার ভুল চিকিৎসায় রোগীর সর্বনাশ হওয়াটাই স্বাভাবিক। তার বিরম্নদ্ধে অনুসন্ধান চালালে কর ফাঁকি থেকে শুরম্ন করে বেরিয়ে আসবে আরো ঘটনা। ##

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৩৯ অপরাহ্ণ | জুন ২২, ২০১৫