| সকাল ১১:৫৩ - সোমবার - ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

মুক্তাগাছায় সাংবাদিক সম্মেলন অভিযোগ বাদির স্বাক্ষর জ্বাল করে ধর্ষণ, খুনের মামলা ভিন্নখাতে নেয়ার চেষ্টা

 

মুক্তাগাছা  প্রতিনিধি: ২১ জুন ২০১৫, রবিবার: 

মুক্তাগাছায় প্রেমিক কর্তৃক ধর্ষণ শেষে খুন হওয়া স্কুলছাত্রী লেবুজা হত্যার বিচার চেয়ে নিহতের পিতা মোঃ শহিদুল্লাহ আজ রবিবার দুপুরে স্থানীয় মুক্তাগাছা  প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন। মূল আসামীকে আড়াল করতে বাদির অজানত্ম রাজনৈতিক নেতা, বিত্তশালী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের আসামী করে পুলিশের বিরুদ্ধে সামারী বাণিজ্যের অভিযোগ করেছেন নিহতের বাবা। বাদীর স্বাক্ষর জ্বাল করে এলাকার ১৫ জন আওয়ামীলীগ নেতা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদেরকে হত্যা মামলায় জড়িত দেখিয়ে এলাকার এক আওয়ামীলীগ নেতা লেবুজা হত্যার বিচার চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়।
সাংবাদিক সম্মেলনে জানানো হয় জামালপুর সদর উপজেলার ইটাইল গ্রামের দরিদ্র মোঃ শহিদুল্লাহর কন্যা ইটাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী লেবুজা একই গ্রামের জিন্নাস আলীর পুত্র সুমনের (১৯) সাথে প্রেমের টানে ঘর ছেড়ে মুক্তাগাছার বিন্নাকুড়ি গ্রামে আসে। সেখানে এক আত্মীয়ের বাড়িতে থাকা অবস্থায় গত ১৯ মে সুমন তার দুই বন্ধু ইটাইল গ্রামের হবি মিয়ার পুত্র মিলন ও রহমত উল্লাহর পুত্র বাবুল মিয়াকে সঙ্গে নিয়ে রাতের অন্ধকারে লেবুজাকে ধর্ষণ শেষে হত্যা করে লাশ একটি গাছের সাথে ঝুলিয়ে রাখে। এ নিয়ে নিহতের পিতা মোঃ শহিদুল্লাহ বাদী হয়ে সুমনকে প্রধান আসামী, মিলন ও বাবুলকে সহযোগি আসামী করে মুক্তাগাছা থানায় মামলা করেন। তবে পুলিশ নিজেদের মতো করে আর্জি লিখে সেখানে জোরপূর্বক বাদীর স্বাক্ষর আদায় করে পুলিশের চাহিদা মতো আসামী করে মামলা এফআইআর করা হয়েছে বলে বাদি অভিযোগ করেন। দীর্ঘ দিনেও পুলিশ মূল আসামীকে গ্রেফতারে কোন ধরনের তৎপড়তা না দেখালেও বানানো আসামীদের বাড়িতে ঘন ঘন হানা দেয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ করা হয়। এদিকে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক ওরফে টাইগার মালেক নিহতের বাবার স্বাক্ষর জ্বাল করে আওয়ামীলীগ নেতা, বিত্তশালী,গণ্যমান্য ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে অভিযোগ করেছেন এবং তার বরাতে পুলিশ এলাকার মানুষকে হয়রানী করছে বলেও অভিযোগ করা হয়। সাংবাদিক সম্মেলনে মূল আসামীকে গ্রেফতারের পাশাপাশি মিথ্যা আসামীদের মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার দাবী জানান বাদী মোঃ শহিদুল্লাহ। এসময় তার সাথে কয়েকজন আত্মীয় উপসি’ত ছিলেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:১৩ অপরাহ্ণ | জুন ২১, ২০১৫