| সকাল ৮:৪৬ - শনিবার - ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ - ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, এতিম ও আলেম উলেমাদের সম্মানে প্রধানমন্ত্রীর ইফতার

অনলাইন ডেস্ক, ২০ জুন ২০১৫, শনিবার,.

 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পবিত্র রমজানের দ্বিতীয় দিন আজ তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, এতিম, শারীরিক প্রতিবন্ধী শিশু এবং আলেম-উলেমাদের জন্য ইফতারের আয়োজন করেন।
প্রধানমন্ত্রী ইফতার অনষ্ঠানে বিভিন্ন টেবিলে যান এবং অতিথিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং তাদের কুশলাদি সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেন।
ইফতারের আগে জাতির অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মাওলানা মিজানুর রহমান মোনাজাত পরিচালনা করেন।
মোনাজাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব এবং ১৫ আগস্টের নির্মম হত্যাকা-ে অন্যান্য শহীদদের, জাতীয় চার নেতা, মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের ও গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বীর শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করা হয়।
অনুষ্ঠানে মুশুরীখোলা দরবার শরীফের পীর সাহেব আলহাজ শাহ মোহাম্মদ আহসানুজ্জামান,ইসলামি ফাউন্ডেশনের বোর্ড অব গভর্নরসের গভর্নর আলহাজ্ব মিসবাহুর রহমান চৌধুরী, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বোর্ড অব গভর্নরসের গভর্নর শেখ খন্দকার গোলাম মাওলা নক্শাবন্দী, মাওলানা আব্দুল আলীম রিজভী, মুফতি মাওলানা জহিরুল ইসলাম মিয়া, মাওলানা বদিউল আলম সরকার, মাওলানা রুহুল আমিন খান উজানবি, হাফেজ মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, ড. মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মারুফ, মাওলানা সৈয়দ ওয়াহিদুজ্জামান, মাওলানা মনিরুজ্জামান রব্বানি, ড. মাওলানা সৈয়দ ইমদাদউদ্দিন, আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল মিয়া, ড. মাওলানা মোরশেদ আলম সালেহী, মুফতি আবুল হাসান শামসাবাদী, মাওলানা এ এম এম সিরাজুল ইসলাম, মাওলানা জালাল আহমেদ, মাওলানা আবু সুফিয়ান জাকি, মাওলানা নাইমুল ইসলাম বরকতী এবং মাওলানা আব্দুল আলিম আজাদী অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।
এ ছাড়া ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, সমাজকল্যাণ মন্ত্রী সৈয়দ মহসীন আলী, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. আবুল কালাম আজাদ ও প্রেস সেক্রেটারি ইহসানুল করিম উপস্থিত ছিলেন।  ঢাকা, ২০ জুন ২০১৫ (বাসস) :

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:০৫ অপরাহ্ণ | জুন ২০, ২০১৫