| বিকাল ৩:২৮ - শনিবার - ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

তাজিকিস্তানের বিপক্ষে ‘ড্র’ বাংলাদেশের

আগের ম্যাচের হতাশা ভুলে দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দিয়েছেন মামুনুলরা। তবে, শেষ রক্ষা হল না এবারও, অনেকটা সময় এগিয়ে থাকার পর শেষ মুহূর্তের গোলে ১-১ গোলের ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় স্বাগতিকদের।

শক্তিশালী তাজিকিস্তানের বিপক্ষে দারুণ পাসিং ফুটবলের পসরা সাজিয়ে বসেছে ফুটবলের বাঘেরা প্রথম মিনিট থেকেই বাংলাদেশ মুহুর্মুহু আক্রমণে ব্যস্ত রেখেছিলো তাজিকিস্তানের রক্ষণকে। আক্রমণের নেতৃত্ব দিয়েছেন অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম।

অনেকগুলোগোলের সুবর্ণ সুযোগ হারিয়েছেন রায়হান, এমিলি, ইয়ামিনরা। মামুনুলের একটা কর্নার এবং এমিলির ফ্রি-কিক আরেকটু হইলেই বারে ঢুকে যেতে পারতো। অল্পের জন্য গোল খাওয়া থেকে বেঁচে যায় তাজিকরা!

গোল না পেলেও জামাল, মামুনুল, সোহেল রানা, ইয়ামিন, ইয়াসীন এবং গোলরক্ষক রাসেল সহ সবাই সবাই ভালো পারফর্ম দেখিয়েছেন। প্রথমার্ধ গোল শূন্য থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে বাংলাদেশ আরো চেপে ধরে তাজিকিস্তানকে। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ এর মাঝেই হঠাৎ করে ডি বক্সের বাম পাশ দিয়ে ফ্রি-কিক পেয়ে যায় বাংলাদেশ। ক্যাপ্টেন মামুনুল এর অসাধারণ বাঁকানো ফ্রিকিকে আলতো করে পা ছুঁইয়ে দিয়ে ম্যাচের ৫০ মিনিটে দলকে এগিয়ে নিলেন দেশসেরা স্ট্রাইকার জাহিদ হাসান এমিলি।

খেলার ৭০ মিনিটের পরেই তাজিকিস্তানের ৬ নম্বর জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় আরশু ফাউল করে লাল কার্ড দেখেন। ৮৭ মিনিটের সময় ডি বক্সের বাইরে থেকে ১৮ নং জার্সি পরিহিত খেলোয়াড়ের ফ্রি-কিক থেকে গোলে সমতায় ফিরে তাজিকিস্তান।

শেষ কয়েকটা ম্যাচেই এইভাবে শেষ মুহূর্তে গোল খেয়ে জয়ের আশা ধূলিসাৎ হয়ে যায় বাংলাদেশের। ভাল ফিনিশারের অভাবেই বাংলাদেশকে আজ ড্র করেই সন্তুষ্ট থাকতে হল। তবে, তাজিকিস্তানের মত শক্তিশালী দলের বিপক্ষে এই ড্রই বাংলাদেশের জন্য অনেক মূল্যবান।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:১৮ অপরাহ্ণ | জুন ১৬, ২০১৫