| দুপুর ১:২১ - শুক্রবার - ১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ - ১৯শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

গুপ্তচরবৃত্তির মামলায় মুরসিকে ২৫ বছরের কারাদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক, ১৬ জুন ২০১৫, মঙ্গলবার:

গুপ্তচরবৃত্তির মামলায় মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে ২৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন মিশরের একটি আদালত।

মঙ্গলবার (১৬ জুন) রাজধানী কায়রোর একটি আদালত এ রায় দেন।

রায়ে ফিলিস্তিনের হামাস, লেবাননের হেজবুল্লাহ ও ইরানের রেভ্যুলুশনারি গার্ডসহ বিদেশি বিভিন্ন শক্তির কাছে রাষ্ট্রের গোপন তথ্য পাচারের দায়ে মুরসিকে অভিযুক্তও করা হয়।

এর আগে কারাগার ভেঙে বন্দি ছিনতাইয়ের মামলায় মোহাম্মদ মুরসিকে মৃত্যুদণ্ড দেন মিশরের একটি আদালত। পরবর্তীতে মতামত চাইতে এ রায় দেশের সর্বোচ্চ ধর্মীয় কর্তৃত্বধারী গ্র্যান্ড মুফতির কাছে পাঠানো হয়।

একই দিন গুপ্তচরবৃত্তির মামলারও রায় ঘোষণা করেন ওই আদালত। রায়ে মুরসির দল নিষিদ্ধঘোষিত মুসলিম ব্রাদারহুডের নেতা মোহাম্মদ এল-বালত্যাগী ও খায়রাত এল-শাতারসহ ১৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। তবে এই মামলায় মৃত্যুদণ্ড থেকে নিস্তার পেয়ে যান মুরসিসহ ১৯ জন।

আরব বসন্তের ঢেউয়ে ২০১১ সালের এপ্রিলে স্বৈরশাসক হোসনি মোবারকের পতন হলে পরের বছরের নির্বাচনে জয় লাভ করে প্রথম গণতান্ত্রিক প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা নেন মুরসি। কিন্তু তার রাষ্ট্র পরিচালনায় অব্যবস্থাপনার অভিযোগ তুলে ধর্মনিরপেক্ষ ও অন্যান্য বিরোধীরা বিক্ষোভ শুরু করলে ব্যাপক সহিংসতা শুরু হয়। এর প্রেক্ষিতে ৩ জুলাই মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করে সেনাবাহিনী। তাকে ক্ষমতাচ্যুত করে বন্দি করা সেনাপ্রধান আবদেল ফাত্তাহ এল সিসিই এখন মিশরের প্রেসিডেন্ট।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:২১ অপরাহ্ণ | জুন ১৬, ২০১৫