| রাত ৯:৩১ - শনিবার - ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৮ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

শহরের সরঃ বিদ্যাময়ী বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ সহযোগীদের বিরুদ্ধে ৪৪টি অভিযোগ্।। ব্যবস্থা না নিলে আন্দোলন

 

স্টাফ রিপোর্টার, ১৪ জুন ২০১৫, রবিবার,
ময়মনসিংহ শহরে ঐতিহ্য সরকারী বিদ্যাময়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিরীন বানু ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাতসহ ৪৪টি অভিযোগ তুলেছেন বিদ্যাময়ী সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় অভিভাবক সংগ্রাম পরিষদ। সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক শারমীন আক্তার বীথি দীর্ঘ প্রায় ৪ পৃষ্টার লিখিত অভিযোগপত্রে বলেছেন, আগামী ৩০ জুনের মধ্যে প্রধান শিক্ষিকা শিরীন বানু এবং তার সহযোগীদের গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস’া না নিলে ১ জুলাই থেকে আন্দোলনে শুরু হবে।
অভিযোগে উল্লেখ্য করেছেন, প্রধান শিক্ষিকা শিরীন বানু একজন একজন যুদ্ধাপরাধী, তিনি বিগত ২৭ সেপ্টেম্বর’২০১১ সাল এই বিদ্যালয়ে যোগদানের পর থেকে ঘুষ, দুনীতি, অনিয়ম, অর্থ আত্মসাত, অনাচার, ব্যাভিচার ও লুটপাটের আখড়ায় পরিণত করেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। ইতোপুর্বে তার বিরুদ্ধে দুনীতি প্রমানিত হওয়ায় বিভাগীয় মামলায় তাকে গুরুদন্ড হিসেবে বেতন অর্ধেক কমিয়ে দেয়া হয়।
তিনি সময় মতো স্কুলে আসেন না সকাল ৭টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন- বিদ্যালয়ে উপসি’ত থাকার কথা থাকলেও বেশীর ভাগ সময় তিনি বিকাল ৩টার পর আসেন। বিকালে এসে রাত ১০ টায় তিনি বাসায় ফিরেন মাতাল অবস’ায়। বিভিন্ন ফান্ডের ২০ লক্ষ টাকা ভুয়া ভাউচার দিয়ে আত্মসাত করেছেন। অবৈধভাবে ফি আদায় করে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাত করেছেন। অভিযোগপত্রে কোন খাতে কত টাকা আত্মসাত করা হয়েছে তা স্ব-বিস-ারে উল্লেখ করা হয়েছে। আত্মসাতকৃত লক্ষ লক্ষ টাকা অভিভাবকদের চাপের মুখে ফেরত দেয়ার কথা উল্লেখ রয়েছে। তার বিরুদ্ধে দুনর্ীতি, অনিয়মের খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে একাধিক বার প্রকাশিত হয়েছে। কিন’ রহস্যজনক কারণে তিনি বহাল তবিয়তে থাকেন।
এমতা্‌বস’ায় আগামী ৩০ জুনের মধ্যে দুর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষক শিরীন বানু ও তার অপরাধের সহযোগী শিক্ষক, কর্মচারী, স’ানীয় ও রাজস্ব অডিট অধিদপ্তরের এসএএস সুপার মুিনরুজ্জামান, সুপার ইনচার্জ, আক্তারুজ্জামান, অডিটর হাবিবুর রহমান, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেনকে গ্রেফতার ও আত্মসাতকৃত শিক্ষাথীদের অর্থ ফেরত না দিলে আগামী ০১ ও ০২ জুলাই থেকে শিক্ষার্থীদের ক্লাশ বর্জন, ০৫ জুলাই সি, কে ঘোষ শিরীন বানুর কুশপুত্তলিকা দাহ করা হবে। ময়মনসিংহ জিলা স্কুল থাকাকালীন সেখান থেকে শিরীন বানুকে জুতা পেটা করে পুলিশের হাতে সোর্পদ করার জন্য আগামী ০৬ জুলাই শাহরিয়ার হোসেন ও নাহিদকে বিরোচিত সম্বর্ধনা প্রদান করা হবে। আগামী ৭ জুলাই ময়মনসিংহ শহরে অর্ধদিবস হরতাল কর্মসূচী দেয়া হবে। এসব কর্মসূচীতে ময়মনসিংহবাসীকে অংশ নিয়ে অতীতের মতো সর্বাত্মক সহযোগিতা করার আহবান জানিয়েছেন সংগ্রাম পরিষদ। অভিযোগপত্রটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষা সচিব, শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবরে প্রেরণ করা হয়েছে।
এব্যাপারে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক শিরীন বানু বলেন, অভিযোগগুলো কোন সত্যতা নেই। সমাজে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে এসব অভিযোগ আনা হয়েছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ | জুন ১৪, ২০১৫