| সকাল ৮:১৭ - সোমবার - ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

নিকলীতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫ ॥ গ্রেফতার ২

 

বাজিতপুর সংবাদদাতা ঃ ১৩ জুন ২০১৫, শনিবার,
কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার গুরম্নই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের কাউন্সিলের প্রস’তিকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রম্নপের সংঘর্ষে ৫ আহত হয়েছে। এব্যাপারে পুলিশ ২ জনকে গ্রেফতার করেছে।
গত শুক্রবার সন্ধ্যা হতে রাত পর্যনত্ম গুরম্নই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ ফজলু হক ও আওয়ামী যুব লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য আনিছুর রহমান নিকুল গ্রম্নপের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৫ ব্যক্তি আহত হয়েছে। গুরম্নতর আহত গুরম্নই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ ফজলুল হক (৬৫) কে আশংকাজনক অবস্থায় গত শুক্রবার রাতেই ভাগলপুর জহুরম্নল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল হতে ঢাকা ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তখন আওয়ামী লীগের দুইগ্রম্নপের সংঘর্ষের জন্য গুরম্নই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কাউন্সিল পন্ড হয়ে গেছে। এই ঘটনায় পুলিশ আওয়ামী যুব লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আনিছুর রহমান নিকুল (৩০) ও তার ছোট ভাই মোশাররফ হোসেন টিটু (২৬) কে গ্রেফতার করার পর আজ  শনিবার কিশোরগঞ্জকোর্টে চালান দিয়েছে পুলিশ। এ ব্যাপারে গুরম্নই ইউ.পি চেয়ারম্যান ফজলুল হকের ছোট ছেলে জাকির হোসেন বাদী হয়ে আনিছুর রহমান নিকুলকে প্রধান আসামী দিয়ে ৬ জনের নাম উলেস্নখ করে নিকলী থানায় মামলা দায়ের করেন। এই সংঘর্ষ এড়ানোর জন্য এলাকায় দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। নিকলী থানার ইনচার্জ মোঃ মাহাবুবুর রহমান আজ শনিবার দুপুরে জানান- সংঘর্ষ এড়ানোর জন্য সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে এবং দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে সত্যতা স্বীকার করেন। এ ঘটনায় কিশোরগঞ্জ-৫ (বাজিতপুর-নিকলী) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আফজাল হোসেন বলেন- চেয়ারম্যানকে মারধরের জন্য আইনী ভাবে পদড়্গেপ নেওয়া হয়েছে এবং দোষীদের যথাযথ বিচার করা হবে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৫৮ অপরাহ্ণ | জুন ১৩, ২০১৫