| সন্ধ্যা ৬:৩২ - শনিবার - ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৮ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ঈশ্বরগঞ্জে অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে প্রেমিক যুগল আটক

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি, ১০ জুন, বুধবার,
ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে বড়হিত গ্রামের মজিবুর রহমানের বাড়ি থেকে অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে এক প্রেমিক যুগলকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ যুগলকে আটক করে বুধবার দুপুরে আদালতে পাঠিয়েছে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানাযায়, উপজেলার বড়হিত গ্রামের মজিবুর রহমানের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী আছমা খাতুন (৩২) পাশ্ববর্তী নান্দাইল উপজেলার রছুলপুর গ্রামের কামরম্নজ্জামান রাসেল (৩৫) এর সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সম্পর্ক গড়ে ওঠার পর প্রায় সময়ই কামরম্নজ্জামান রাসেল রাতের বেলায় আছমা খাতুনের ঘরে আসা যাওয়া করত। মঙ্গলবার গভীর রাতে মজিবুর রহমান বাড়িতে না থাকায় মোবাইলের ফোনে কামরম্নজ্জামান রাসেলকে বাড়িতে আসতে বলে আছমা খাতুন। ওই রাতেই আসমার ঘর থেকে দুইজনকে আটক করে এলাকাবাসী। পরে ঈশ্বরগঞ্জ থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস’ল থেকে প্রেমিক যুগলকে আটক করে বুধবার দূপুরে ময়মনসিংহ আদালতে প্রেরণ করে।
দুই সন্তানের জননী আছমা খাতুন জানান, প্রায় দেড় বছর পূর্বে মোবাইল ফোনে রাসেলের সাথে পরিচয় হওয়ার পর থেকেই বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। তবে অসামাজিক কার্যকলাপের কথা অস্বীকার করে তিনি বলেন, কিছু দুষ্ট প্রকৃতির লোক ফাঁসানোর জন্য এরকম একটা নাটক সাজিয়েছে। রাসেলের কাছে থেকে ধার নেওয়া ৩০ হাজার টাকা ফিরিয়ে দিতে ফোন দিয়ে তাকে বাড়িতে আসতে বলা হয়।
থানার ওসি (তদন্ত) মো. নওজেস আলী মিয়া জানান, দীর্ঘদিন ধরে ওই যুগল অসামাজিক কাজে লিপ্ত ছিলো। এলাকাবাসী তাদের একটি ঘরে আটক করে পুলিশে খবর দিলে তাদের আটক করা হয়।#

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৫৪ অপরাহ্ণ | জুন ১০, ২০১৫