| সকাল ৬:৫২ - রবিবার - ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ২রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণকে কেন্দ্র করে প্রধান শিক্ষককে মারধর শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা বর্জন, বিক্ষোভ মিছিল

গফরগাঁও প্রতিনিধি ঃ ০৪ জুন, বৃহস্পতিবার,
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে বিদ্যালয় ভবন নির্মাণকে কেন্দ্র করে আরজ আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে মারধর করে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় ছাত্র-ছাত্রীরা পরীক্ষা বর্জন করে বিক্ষোভ মিছিল করে।
জানা যায়, উপজেলার বারইহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণের জায়গা নির্ধারণকে কেন্দ্র করে আরজ আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও পরিচালনা কমিটির লোকজনের সাথে দ্বন্দ্ব হয়। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় নাদিম ও লিটনের নেতৃত্বে কয়েকজন সন্ত্রাসী আরজ আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমানকে মারধর করে। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষক বাদি হয়ে দ্রুত বিচার আইনে পাগলা থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে আজ বৃহস্পতিবার মামলার আসামীরা আবারো বিদ্যালয়ে সশস্ত্র অবস্থায় প্রবেশ করলে শিক্ষার্থী ও বিদ্যালয় পরিচালা কমিটি প্রতিরোধ গড়ে তোলে। এ ঘটনায় তাৎক্ষনিকভাবে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা বর্জন করে বিক্ষোভ মিছিল ও সন্ত্রাসীদের বিচার দাবী করে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে বারইহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নিলুফা খানম বলেন, আমার বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মাণের জন্য ৭৮ লাখ টাকা বরাদ্দ হলে সন্তান নির্ধারণে আরজ আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষকদের সাথে জমি দাতা পরিবারের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়।
আরজ আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমান দুলাল বলেন, স্থানীয় সন্ত্রাসীরা আমার উপর হামলা করলে এ ব্যাপারে আমি থানায় মামলা করি। এখনো আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুল মান্নান খান বলেন, যে জায়গায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন করতে চায় তা আরজ আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের।
পাগলা থানার ওসি বদরুল আলম খান বলেন, প্রধান শিক্ষককে মারধরের অভিযোগে দ্রুত বিচার আইনে মামলা হয়েছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:৫১ অপরাহ্ণ | জুন ০৪, ২০১৫