| সকাল ৭:৩৫ - সোমবার - ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

মাতলুব প্যানেলের সংখ্যাগরিষ্ঠতা

অনলাইন ডেস্ক | ২৫ মে ২০১৫, সোমবার,

ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (এফবিসিসিআই) দ্বিবার্ষিক (২০১৫-১৭) পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনে নিটল-নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান মাতলুব আহমাদের নেতৃত্বাধীন ‘উন্নয়ন পরিষদ’ নিরঙ্কুশ বিজয় লাভ করেছে। চেম্বার ও অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের ৩২ পরিচালকের মধ্যে ২৫ জনই বিজয়ী হয়েছেন উন্নয়ন পরিষদ থেকে। এ ছাড়া মনোয়ারা হাকীম আলীর নেতৃত্বাধীন স্বাধীনতা ব্যবসায়ী পরিষদ থেকে চারজন এবং ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের ৩ প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। ফলে এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি হতে মাতলুব আহমাদের আর কোন প্রতিদ্বন্দ্বী রইলো না। ২৫শে মে নির্বাচিত পরিচালকের ভোটে তিনি এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি নির্বাচিত হবেন। গতকাল সকালে এ ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এর আগে শনিবার সকাল ৯টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। চেম্বার গ্রুপের ৪৩৬ ভোটারের মধ্যে ৪১৮ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এ ছাড়া অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের ১৭৬৬ ভোটারের মধ্যে ১৫৩২ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। চেম্বার গ্রুপের ফলাফল ঘোষণা করা হয় শনিবার রাত ১১টায়। আর অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের ভোট গণনা শেষে ফলাফল ঘোষণা করা হয় গতকাল ভোর সোয়া ৬টায়। মাতলুব আহমাদের নেতৃত্বাধীন চেম্বার গ্রুপের উন্নয়ন পরিষদের বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন নারায়ণগঞ্জ চেম্বারের বজলুর রহমান, নরসিংদীর প্রবীর কুমার সাহা, বাংলাদেশ ওমেন চেম্বারের হাসিনা নেওয়াজ, মেহেরপুরের নাগিবুল ইসলাম দিপু, গোপালগঞ্জের শেখ ফজলে ফাহিম, ময়মনসিংহের আমিনুল হক শামীম, কিশোরগঞ্জের গাজী গোলাম দস্তগীর, সুনামগঞ্জের নূরুল হুদা মুকুট, বরিশাল মেট্রোপলিটনের চেম্বারের নিজাম উদ্দিন, চুয়াডাঙ্গার দীলিপ কুমার আগরওয়াল, গাজীপুরের আনোয়ার সাদত সরকার ও জামালপুর চেম্বারের রেজাউল করিম রেজনু। উন্নয়ন পরিষদের সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন আমিনুল হক শামীম ৩৩৫। উন্নয়ন পরিষদ অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের প্রার্থী হেলাল উদ্দিন সর্বোচ্চ ১,০৯৩ ভোট পেয়ে প্রথম হয়েছেন। এ ছাড়া অন্য বিজয়ী প্রার্থীদের মধ্যে দ্বিতীয় হয়েছেন নিজামউদ্দিন রাজেশ, তৃতীয় হয়েছেন হারুন-উর-রশিদ, শামীম আহসান, আবু মোতালেব, হাবিব উল্লাহ ডন, কে এম আক্তারুজ্জামান, সোয়েব চৌধুরী, মুনতাকিম আশরাফ, এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, আবু নাসের, আমিন হেলালী ও শফিকুল ইসলাম ভরসা নির্বাচিত হয়েছেন।
এ ছাড়া অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপে সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন ও ড. এরতেজা হাসানের নেতৃত্বাধীন ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদ থেকে নির্বাচিত তিন প্রার্থী হলেন রোটারিয়ান আবুল আয়েস খান, খন্দকার রুহুল আমিন ও শাফকাত হায়দার। চেম্বার গ্রুপে মনোয়ারা হাকিম আলীর নেতৃত্বাধীন স্বাধীনতা ব্যবসায়ী পরিষদের ৪ জন বিজয়ী পরিচালক হলেন এফবিসিসিআইয়ের বর্তমান প্রথম সহসভাপতি মনোয়ারা হাকীম আলী, মানিকগঞ্জ চেম্বারের তাবারাকুল তোসাদ্দেক হোসেন খান টিটু, কুমিল্লা চেম্বারের মাসুদ পারভেজ খান ইমরান এবং যৌথভাবে ২০৫ ভোট পেয়ে কোহিনূর ইসলাম ও মো. মাসুদ বিজয়ী হয়েছেন। এ দুজনের বিষয়ে ভোট পুনঃগণনা করে পরে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলী আশরাফ। এবারের এফবিসিসিআই নির্বাচনে চেম্বার ও অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের নির্বাচিত ৩২ পরিচালক পদের বিপরীতে ৩টি প্যানেলে ৬৩ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এর মধ্যে মনোয়ার হাকীম আলীর নেতৃত্বাধীন চেম্বার গ্রুপ থেকে স্বাধীনতা ব্যবসায়ী পরিষদ থেকে ১৪ জন এবং সৈয়দ মোয়াজ্জেম ও ড. কাজী এরতেজা হাসানের নেতৃত্বাধীন ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদ থেকে ১৬ জন, মাতলুব আহমাদের নেতৃত্বাধীন, উন্নয়ন পরিষদ থেকে চেম্বার ও অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপ মিলে ৩২ জন এবং অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপ থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছেন জাকিয়া সুলতানা মিথিলা।

 

সর্বশেষ আপডেটঃ ১:১৫ অপরাহ্ণ | মে ২৫, ২০১৫