| রাত ১০:১৪ - সোমবার - ২১শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ২৬শে রবিউস সানি, ১৪৪৪ হিজরি

মেক্সিকোয় বন্দুকযুদ্ধে ৪৩ জন নিহত

অন লাইন ডেস্ক, ২৩ মে ২০১৫, শনিবার,  

মেক্সিকোর ফেডারেল ফোর্স শুক্রবার দেশটির গোলযোগপূর্ণ পশ্চিমাঞ্চলে মাদক চক্রের সন্দেহভাজন সদস্যেদের বিরুদ্ধে এক অভিযান চালিয়েছে। এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে ৩ ঘন্টা বন্দুকযুদ্ধ চলে। এতে মাদকচক্রের সন্দেহভাজন ৪২ সদস্য নিহত হয়।  এটি মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের ভয়াবহ রক্তপাতের ঘটনা।
কর্মকর্তারা জানান, এই অভিযানে ফেডারেল পুলিশের এক সদস্য নিহত হয়েছে। ‘সশস্ত্র অপরাধীরা’ কাছের রাজ্য জালিস্কোর কাছে মিচোয়াসান রাজ্যের তানহুয়াতোয় একটি খামার দখলে নিয়েছে এ খবর পেয়ে কর্তৃপক্ষ এই অভিযান পরিচালনা করে।  ন্যাশনাল সিকিউরিটি কমিশনার মন্টে আলেজান্দ্রো রুবিদো বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমরা ৪২ সন্দেহভাজন অপরাধীকে হত্যা ও আরো ৩ জনকে আটক করেছি।’ অপরাধী চক্রটির নাম উল্লেখ না করে রুবিদো আরো জানান, চক্রটি নিউ জেনারেশন মাদক চক্রের ঘাঁটি জলিস্কো ভিত্তিক।
নিউ জেনারেশন একটি শক্তিশালী সশস্ত্র সংগঠন। এটি প্রেসিডেন্ট এনরিক পেনা নিতো প্রশাসনের প্রধান টার্গেটে পরিণত হয়েছে। খবর এএফপি’র।

চক্রটির সঙ্গে এশিয়ার অপরাধ চক্রগুলোর সম্পর্ক রয়েছে। এছাড়াও এরা যুক্তরাষ্ট্রেও মাদক পাচার করে।
সংগঠনটি মার্চ ও এপ্রিল মাসে দুটি পৃথক হামলা চালিয়ে ২০ পুলিশ কর্মকর্তাকে হত্যা করে। ১ মে সরকার মাদক চক্রটির বিরুদ্ধে অপারেশন জালিস্কো শুরু করে। একই দিন চক্রটি একটি সামরিক হেলিকপ্টারে রকেট হামলা চালিয়ে তা বিধ্বস্ত করলে ৭ সৈন্য ও এক নারী পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়।  শুক্রবার সৈন্য ও পুলিশের যৌথ বাহিনী বন্দুকধারীদের গাড়ি দেখতে পেলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। অপরাধীরা নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে ওই খামারের ভেতর পালিয়ে যায়। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা খামারে অভিযান চালালে এই রক্তপাতের ঘটনা ঘটে।  উভয়পক্ষের মধ্যে এই ভয়াবহ সংঘর্ষে শস্যগুদাম ও ৬টি যানবাহন পুড়ে যায়। কর্মকর্তারা খামার থেকে ৩৬টি রাইফেল, একটি রকেট লাঞ্চার ও একটি শক্তিশালী .৫০ ক্যালিবার রাইফেল ও বিপুল সংখ্যক কার্তুজ জব্দ করে।  সকালের এই সংঘর্ষের পর এল সোল নামের খামারটি প্রায় ৫শ’ ফেডারেল পুলিশ ও সৈন্য ঘিরে রেখেছে।বাসস

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:১৪ অপরাহ্ণ | মে ২৩, ২০১৫