| সকাল ৯:৩৪ - শনিবার - ২৬শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ১লা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

মুক্তাগাছার শিক্ষা অফিসারের কারিশমা নির্বাচনী সহিংসতার মামলায় চার্জশীটভুক্ত আসামী আব্দুস সামাদকে বাচাতে মরিয়া

মুক্তাগাছা প্রতিনিধি: মুক্তাগাছা উপজেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে প্রভাবিত হয়ে প্রশাসনিক ব্যবসত্মা নিতে অনিহা প্রকাশের খবর অবশেষে ফাঁস হয়েগেছে। মোটা অংকে উৎকোচের বিনিময়ে তিনি সরকারী চাকরিবিধি অনুসরন না করে নির্বাচনী সহিংসতা/ সন্ত্রাসী মামলার চার্জশীটভুক্ত আসামীর বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস’া নিতে ব্যর্থ হয়েছেন। বরং তাকে বাঁচানোর জন্য মরিয়া হয়ে লেগেছেন। সূত্রমতে ২০১৪সালের ১৫মার্চ উপজেলা নির্বাচনে মুক্তাগাছা উপজেলার ৭নং রঘুনাথপুর-বলবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ৬০/৭০ জনের একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ ভোট কেন্দ্রে হামলা চালিয়ে প্রিজাইডিং অফিসার,সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও পুলিং অফিসারদের মারধর করে। এসময় পুলিশ আত্মরক্ষার্থে দুই রাউন্ড ফাকা গুলি বর্ষণ করে। গুলি বর্ষণের পর সন্ত্রাসীরা পিছু হটে যায় এবং হুমকি দিয়ে যায় যাতে ভোট গ্রহণ করা না হয়। এব্যাপারে প্রিজাইডিং অফিসার খোরশেদ আলম বাদি হয়ে মুক্তাগাছা থানায় ১৪৩/৪৪৮/৩৫৩/১৮৬/৩৩২ দবি সহ উপজেলা নির্বাচন বিধিমালা ২০১৩এর ৭৪(৩) ধারায় মামলা করেন। মামলা নং ১৩,তারিখ ১৬/৩/২০১৪। থানা পুলিশ মামলাটির তদনত্ম শেষে চার্জশীট আদালতে দাখিল করে। উক্ত মামলার চার্জশীটভুক্ত আসামী মোঃ আব্দুস সামাদ পিতা সামছুল মৌলভী সাং কামারিয়া। তিনি নটাকুরি ভদ্রের বাইদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বর্তমানে লক্ষীপুর সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত। এই আব্দুস সামাদই উক্ত মামলার চার্জশীট ভুক্ত আসামী। আসামী আব্দুস সামাদ গত ১৫/৪/২০১৫ অতিগোপনে ময়মনসিংহের বিজ্ঞ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন। বিজ্ঞ আদালত জামিন নামঞ্জুর করে জেলে পাঠান। ৮দিন হাজত খাটার পর জামিনে বেরিয়ে এসে উপজেলা শ্‌ক্িষা অফিসারকে মোটা টাকার বিনিময়ে ম্যানেজ করে বরখা্‌সত্ম থেকে নিসত্মার পেয়ে বহাল তবিয়তে চাকরি করছেন। এ বিষয়টি এখন মুক্তাগাছার সর্বত্র চাউর। প্রশাসনসহ শিক্ষক সমাজে অদক্ষ শিক্ষা অফিসারের সমালোচনা চলছে অহরহ। অনেকেই বলছে ইতিপূর্বে এমন অদক্ষ শিক্ষা অফিসার আর আসেনি।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৩২ অপরাহ্ণ | মে ১৯, ২০১৫