| ভোর ৫:৪৮ - বৃহস্পতিবার - ৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ১৩ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

সালমান খানের সাজা স্থগিত

বিনোদন ডেস্ক | ৮ মে ২০১৫, শুক্রবার,

বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের সাজা স্থগিত করা হয়েছে। ২০০২ সালে অনিচ্ছাকৃতভাবে গাড়িচাপা দিয়ে মানুষ মারার ‘হিট এন্ড রান’ মামলায় ৬ই মে তার ৫ বছরের কারাদ-াদেশ দেন মুম্বইয়ের একটি আদালত। এমন ঘটনায় আদালতেই ভেঙে পড়েন সালমান ও তার পরিবারের সদস্যরা। গত দুদিন ধরে সালমান ভক্তরাও অবস্থান নিয়েছেন তার বাড়িতে। ভারতের বিভিন্ন স্থানে সালমানের প্রতি সুবিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন তার ভক্তরা। তবে এখন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন সালমান। মুম্বইয়ের দায়রা আদালতের রায়ে তার পাঁচ বছরের কারাদ- স্থগিত করার আদেশ দেয়া হয়েছে আজ। এক শুনানিতে এ আদেশ দেন মুম্বই উচ্চ আদালত। অবশ্য জামিনের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় তাকে আগে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে হবে। তারপর নতুনভাবে ট্রায়াল কোর্টে আবেদন করতে পারবেন ৪৯ বছর বয়সী এই অভিনেতা। ব্যক্তিগত ৩০ হাজার টাকার বন্ডে জামিন দেয়া হবে তাকে। ৬ই মে সালমানের বিরুদ্ধে সাজার আদেশ দেন বিচারক ডি ডব্লিউ দেশপান্ডে। ওইদিনই দায়রা আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে জামিনের আবেদন করেন সালমানের আইনজীবী অমিত দেশাই। যার প্রেক্ষিতে দুই দিনের জামিন পেয়েছিলেন সালমান। যদিও জামিন বাতিলের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে একটি পিটিশন দাখিল করা হয়েছিল। কিন্তু শুনানিতে জামিন বহাল রাখা হয়েছে। শুক্রবার শুনানিতে আইনজীবী জানান, ১৩ বছর আগে দুর্ঘটনার সময় গাড়িতে ছিলেন সালমানের বন্ধু কমল খান। কিন্তু মামলা চলাকালীন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেনি দায়রা আদালত। দুর্ঘটনার সময় গাড়ির গতি ৯০-১০০ কিলোমিটারের মধ্যে ছিল বলেও জানান অমিত দেশাই। কামাল খান এখন বিদেশে আছেন। তাই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে মুম্বই উচ্চ আদালত। তার আগ পর্যন্ত বহাল থাকবে জামিন। আগামী ১১ই মে থেকে গ্রীষ্মকালীন ছুটি শুরু হবে আদালতপাড়ায়। তাই এক মাস পর ফের এ মামলার শুনানি হবে বলে জানিয়েছেন মুম্বই উচ্চ আদালতের বিচারপতি।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:১১ অপরাহ্ণ | মে ০৮, ২০১৫