| রাত ১০:৫৬ - বুধবার - ১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ১৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

নাইজেরিয়ায় বেসামরিক মানুষের ওপর সেনাবাহিনীর হামলা

অনলাইন ডেস্ক | ৪ মে ২০১৫, সোমবার:

নাইজেরিয়ায় রক্ষকই হয়ে উঠলো ভক্ষক। যে জনসাধারণকে সেনাবাহিনীর সুরক্ষা দেয়ার কথা, সেই নিরপরাধ, নিরীহ জনগণকেই নির্বিচারে গুলি করে ও তাদের বাড়িঘর ধুলোয় মিশিয়ে দিয়ে ৬ সেনা সদস্যকে হত্যার প্রতিশোধ নিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। গতকাল এ ঘটনা ঘটেছে নাইজেরিয়ার কেন্দ্রীয় প্লাটো প্রদেশের ওয়েইজ জেলায়। একের পর এক হামলা চালিয়ে সেনাবাহিনী কমপক্ষে ৮০ জনকে হত্যা করেছে। সম্প্রদায়ের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা এবং স্থানীয় বাসিন্দারা এ দাবি করেছেন। তবে সেনা মুখপাত্র ক্যাপ্টেন ইকওয়েদিচি আইওয়েহা বিশেষ টাস্ক ফোর্সের বিরুদ্ধে আনীত এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তার যুক্তি, কেন অযথা সেনাবাহিনী সাধারণ মানুষকে হত্যা করবে, যাদের রক্ষার দায়িত্ব তাদের ওপর ন্যস্ত। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি। বাসিন্দাদের অভিযোগ, সেনা সদস্যরা ১২টিরও বেশি সাঁজোয়া সামরিক যান নিয়ে সেখানে যায় এবং হামলা চালায়। সম্প্রদায়ের নেতা জ্যাঙ্গল প্লাটো প্রাদশিক রাজধানী জসে একটি সংবাদ-সম্মেলন আহ্বান করেছেন। গত বৃহস্পতিবার তারোক গোষ্ঠীর যুবকেরা ৬ সেনা সদস্যকে হত্যা করে তাদের অঙ্গচ্ছেদ করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। ওই হামলায় নিহত ৪ সেনার লাশ এখনও পাওয়া যায়নি। ওই ৬ সেনা হত্যার বদলা নিতেই সেনাবাহিনী এ হামলা চালিয়েছে বলে মনে করছেন অনেকেই।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:২৭ অপরাহ্ণ | মে ০৪, ২০১৫