| সকাল ১০:০৭ - বুধবার - ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ১১ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

কারা কর্তৃপক্ষের অবহেলাতে পিন্টুর মৃত্যু :খালেদা

অনলাইন ডেস্ক | ৩ মে ২০১৫, রবিবার:
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, নাসিরউদ্দিন আহমেদ পিন্টুর চিকিৎসায় কারা কর্তৃপক্ষের চরম অবহেলা ছিল। তাকে সুচিকিৎসা দিতে ডাক্তারদের পরামর্শ উপেক্ষা করার কারণেই তার অকাল মৃত্যু হয়েছে। দলের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন স্বাক্ষরিত রোববার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।
খালেদা বলেন, উচ্চ আদালতের আদেশ অমান্য করে সুচিকিৎসা না দিয়ে বরং গুরম্নতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে গত ২৪ এপ্রিল ২০১৫ নারায়ণগঞ্জ কারাগার থেকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হলেও দুই দিন কোনো চিকিৎসা না দিয়ে ২৬ এপ্রিল তাকে রাজশাহী কারা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসায় কারা কর্তৃপক্ষের চরম অবহেলা এবং সুচিকিৎসা দিতে ডাক্তারদের পরামর্শ উপেক্ষা করার কারণেই তার অকাল মৃত্যু হয়েছে।
তিনি বলেন, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের জাতীয়তাবাদী দর্শনে বিশ্বাসী ও বলিষ্ঠ সংগঠক মরহুম নাসিরউদ্দিন আহমেদ পিন্টু মূলত সমাজসেবার মহান ব্রত নিয়ে রাজনীতি করতেন। আর এ কারণেই ঢাকাবাসীসহ সারাদেশের জাতীয়তাবাদী চেতনায় বিশ্বাসীদের নিকট তিনি একজন জনপ্রিয় রাজনীতিক হিসেবে অত্যনত্ম সুপরিচিত ছিলেন
খালেদা জিয়া বলেন, তার সুযোগ্য নেতৃত্বে ঢাকা বিভাগীয় বিএনপি তৃণমূল পর্যায়ে বিসত্মৃত হয়েছিল। এ ছাড়া তার নির্বাচনি এলাকার উন্নয়নে অবদানের কথা তার এলাকাবাসী কোনদিনো ভুলে যাবে না।
তিনি বলেন, মরহুম নাসিরউদ্দিন আহমেদ পিন্টু মানুষের মৌলিক ও গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষে সকল স্বৈরাচারের বিরম্নদ্ধে আন্দোলন ও লড়াই সংগ্রামে যে ভূমিকা পালন করেছিলেন তা দেশবাসী চিরকাল স্মরণ রাখবে।
খালেদা জিয়া বলেন, তার মৃত্যুতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি একজন অভিজ্ঞ ও জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ এবং সমাজসেবককে হারালো যার শুন্যস্থান সহজে পূরণ হবার নয়।
মরহুম নাসিরউদ্দিন আহমেদ পিন্টুর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে তার শোকসনত্মপ্ত পরিবার, আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান খালেদা জিয়া ।
এর আগে বিএনপির আনত্মর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন দলের কেন্দ্রিয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন,গত মাসের ২০ তারিখে পিন্টুকে নারায়ণগঞ্জ কারাগার থেকে রাজশাহী কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। এর আগে পিন্টুর আইনজীবী আদালতকে জানিয়েছিলেন তার শারীরিক সমস্যার কথা। ওই প্রেক্ষিতে আদালত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এবং জাতীয় চড়্গু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে পিন্টুর চিকিৎসার নির্দেশ দেন। কিন’ কারা কর্তৃপক্ষ আদালতের নির্দেশ উপেক্ষা করে তাকে রাজশাহী কারাগারে স্থানান্তর করে।
রিপন আরো বলেন, ‘পিন্টু রাজশাহী কারা হাসপাতালে ছিলেন। কারা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করতে বলেছিলেন। কিন’ সেটা করা হয়নি। কারা কর্তৃপক্ষ তাকে সুচিকিৎসা থেকে বঞ্ছিত করেছেন। অর্থাৎ কারা কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণেই পিন্টুকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়তে হয়েছে।’এফএনএস:

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:৩০ অপরাহ্ণ | মে ০৩, ২০১৫