| রাত ১:৩৬ - শুক্রবার - ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

নতুন রেকর্ডে শনাক্ত ছাড়াল ৪০ হাজার

একদিনে ২০২৯ জন আক্রান্ত, সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড

লোক লোকান্তরঃ  মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ২০২৯ জন,যা একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। একই সময়ে ভাইরাসটিতে আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে মোট ৫৫৯ জন মারা গেলেন করোনায়। মোট আক্রান্তের সংখ্যা হয়েছে ৪০ হাজার ৩২১।

 

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস বিষয়ক নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। বুলেটিন পড়েন অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (মহাপরিচালকের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

 

তিনি নতুন একটিসহ মোট ৪৯টি ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় নয় হাজার ২৬৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় আগের কিছু মিলিয়ে নয় হাজার ৩১০টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো দুই লাখ ৭৫ হাজার ৭৭৬টি।

 

নতুন নমুনা পরীক্ষায় করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে আরও দুই হাজার ২৯ জনের দেহে, যা একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। এই প্রথম ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দুই হাজার ছাড়াল। ফলে দেশে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪০ হাজার ৩২১ জন।

 

আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে আরও ১৫ জনের। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৫৯ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ৫০০ জন। এ নিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল আট হাজার ৪২৫ জনে।

 

তিনি বলেন, ৪৯টি ল্যাবে নতুন সংযোজিত হয়েছে সিরাজগঞ্জে শহীদ এম. মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ।

 

গত ২৪ ঘণ্টায় ৫০০ জন সুস্থ হয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, এ পর্যন্ত আট হাজার ৪২৫ জন সেরে উঠেছেন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ২০ দশমিক ৮৯ শতাংশ।

 

শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৩৯ শতাংশ। মৃত্যুর বিশ্লেষণে পুরুষ ১১ জন ও নারী চারজন। বিভাগ বিশ্লেষণে ঢাকায় সাতজন ও চট্টগ্রাম বিভাগে আটজন।

 

মৃত্যুর বয়স বিশ্লেষণ করে তিনি জানান, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের পাঁচজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের পাঁচজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের দুজন, ৯১ থেকে ১০০ বছর বয়সের মধ্যে একজন মৃত্যুবরণ করেছেন।

 

‘এলাকাভিত্তিক বিশ্লেষণে ঢাকা শহরে ছয়জন, নারায়ণগঞ্জে একজন, চট্টগ্রাম শহরে দুজন, চট্টগ্রাম জেলায় দুজন, কক্সবাজারে দুজন, কুমিল্লায় দুজন।’

 

২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে ২৪৮ জনকে, আর ছাড়া পেয়েছেন ১৩৮ জন। বর্তমানে চার হাজার ৯৮৪ জন আইসোলেশনে আছেন বলে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৩:১৪ অপরাহ্ণ | মে ২৮, ২০২০