| রাত ১০:২৫ - বুধবার - ১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ১৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

ময়মনসিংহে সুদের টাকা দিতে না পারায় বিষ পানে আত্মহত্যা

লোক লোকান্তরঃ  সুদের টাকার চাপে স্বামী-স্ত্রী মিলে বিষ পানে আত্মহত্যা প্রয়াস করে। এতে স্বামী মৃত্যুবরণ করে এবং স্ত্রী আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছে।

 

আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার সরিষা ইউনিয়নের এ ঘটনা ঘটে।

 

জানা যায়,  ইউনিয়নের মহেশপুর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে মহেশপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী হারুন মিয়া (২৮) ও তার স্ত্রী জেসমিন আক্তার (২৩) দু’জনে মিলে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় নিজ গৃহে বিষ পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

 

বিষয়টি পরিবারের অন্য সদস্যরা আঁচ করতে পেরে ঘরের দরোজা ভেঙ্গে দু’জনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক হারুন মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন এবং স্ত্রী জেসমিনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন। হারুন-জেসমিন দম্পতির ঘরে আড়াই বছর বয়সের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

 

হারুনের মা খোরশেদা বেগম জানান, বিভিন্ন জনের কাছ থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা সুদে ঋণ করে হারুন। এই টাকার জন্যে প্রতিদিনই পাওনাদাররা বাড়িতে এসে ছেলেকে শাসিয়ে যেত। টাকা পরিশোধের জন্য হারুনের পিতা জমিবিক্রি করার চেষ্টা করলেও করোনার কারণে তা বিক্রি করতে পারেনি। কিন্তু সুদখোররা তা না মেনে চাপ অব্যাহত রেখেছিল। সুদখোরদের এমন চাপে আমার ছেলে মানসিকভাবে প্রচণ্ড চাপের মধ্যে থাকতো।

 

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি মোখলেছুর রহমান জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্যে মর্গে পাঠানো হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি জেসমিনকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে মামলার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৫০ অপরাহ্ণ | মে ২৬, ২০২০