| বিকাল ৪:০৭ - বুধবার - ৩রা আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৪ঠা মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

ময়মনসিংহে তালাক দেয়ায় স্ত্রীকে খুন

লোক লোকান্তরঃ ময়মনসিংহে সাবেক স্বামী এমদাদুল হক (২৬) এর হাতে তালাকপ্রাপ্তা স্ত্রী খুন হয়েছেন। নিহত নারীর নাম লাকী আক্তার (২২)। ঘটনার পর পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

 

মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) সকালে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাইজভাগ ইউনিয়নের দত্তগ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

নিহত লাকী আক্তার দত্তপাড়া গ্রামের সাহেদ আলীর মেয়ে। আর এমদাদুল হক একই গ্রামের আহাম্মদ আলীর ছেলে।

 

গ্রামবাসীরা জানান,  এমদাদুল গত চার বছর আগে বিয়ে করেন চাচাত বোন লাকী আক্তারকে। এমদাদুল পেশায় কৃষক। তাদের ঘরে মাইশা আক্তার নামে আড়াই বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। গত পাঁচ মাস আগে স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের মধ্যে নানা টানাপোড়েন দেখা দেয়। এর জের ধরে লাকী আক্তার একতরফাভাবে স্বামীকে তালাক দিয়ে ঢাকায় চলে যান।

 

এদিকে শত চেষ্টা করেও স্ত্রীকে তালাক দেয়া থেকে বিরত করতে পারেননি স্বামী এমদাদুল। লাকী ঢাকায় গিয়ে পোশাক কারখানায় কাজ নেন।

 

মঙ্গলবার এমদাদুল জমিতে ধান কাটছিলেন। সকাল সাড়ে আটটার দিকে সাবেক স্ত্রী লাকী আক্তারের আগমনের সংবাদ পেয়ে দ্রুত বাড়ি ছুটে যান। সেখানে গিয়ে দেখাতে পান মাইশাকে নিয়ে চাচার ঘরে শুয়ে আদর করছে লাকী আক্তার। সন্তানকে আদর করার এ দৃশ্য দেখে ক্ষুব্ধ হয়ে ধারালো অস্ত্র নিয়ে স্ত্রীর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন এমদাদুল। উপর্যুপরি আঘাত করে রক্তাক্ত অবস্থায় স্ত্রীকে ঘরে ফেলে পালিয়ে যান। ঘটনাস্থলেই লাকী’র মৃত্যু হয়।

 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাখের হোসেন সিদ্দিকী বলেন, পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। এমদাদের বাবা আহাম্মদ আলী ও মা মমতাজ বেগমকে আটক করে থানায় নেওয়া হয়েছে। ঘটনার পর থেকে এমদাদ পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:১৯ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৮, ২০২০