| রাত ১১:৫৯ - বুধবার - ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ৫ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

তরুণ পাঠকদের পুরস্কৃত করবে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ও গ্রামীণফোন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৩ জানুয়ারি ২০১৬, বুধবার,
বই পড়া প্রতিযোগিতায় তরুণ পাঠকদের পুরস্কৃত করতে আগামী ১৫ ও ১৬ জানুয়ারি ২০১৬ এ যৌথভাবে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ও গ্রামীণফোন। আজ বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত একটি সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেয়া হয়।
দু’দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানটি রমনা বটমূলে অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানটির উদ্বোধন করা হবে এ মাসের ১৫ তারিখ।
বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের ‘নেশন ওয়াইড এনরিচমেন্ট প্রোগ্রাম’র অধীনে আয়োজিত বইপড়া কর্মসূচীতে ১২ বছর ধরে সহায়তা করে আসছে গ্রামীণফোন। কর্মসূচিটি বিগত দিনে বেশ সফলতা লাভ করেছে এবং ভবিষ্যতেও বই থেকে জ্ঞান আহরণের মাধ্যমে নিজেদের সমৃদ্ধ করার েত্ের তরুণ প্রজন্মের সহায়ক হবে। এ বছর কর্মসূচিটিতে ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। কর্মসূচিটিতে সারাদেশ থেকে অংশগ্রহণ করেছে প্রায় দেড় লাখ শিক্ষার্থী।
প্রতিবছর ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনায় তিনটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর রাজশাহী বিভাগেও এ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হবে। এ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে দেশের বিখ্যাত ব্যক্তিগণ বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দিবেন।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী অধ্যাপক আব্দুলস্নাহ আবু সায়ীদ ও গ্রামীণফোনের হেড অফ এঙটার্নাল কমিউনিকেশনস সৈয়দ তালাত কামাল।
সংবাদ সম্মেলনে সৈয়দ তালাত কামাল বলেন, ‘আমাদের সন্তানদের হাতেই আমাদের ভবিষ্যতের চাবি। দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে আমাদের সনত্মানেরা যেনো দায়িত্বশীল ও বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন নাগরিক হিসেবে বেড়ে উঠতে পারে। আমাদেরই এটা নিশ্চিত করতে হবে। আর, এটা করার সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে যত সম্ভব তাদের বই পড়তে উৎসাহিত করার মাধ্যমে জ্ঞান বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখা।’
গত বছর, গ্রামীণফোন এর ‘সবার জন্য ইন্টারনেট’ প্রয়াসের অধীনে মোবাইল অ্যাপ ‘আলোর পাঠশালা’ উদ্বোধনে পৃষ্ঠপোষকতা করে। এই অ্যাপ ব্যবহারের মাধ্যমে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের ই-লাইব্রেরি থেকে বিনামূল্যে বই পড়া ও ডাউনলোড করা যাবে

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৪৮ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১৩, ২০১৬