| রাত ১:৪১ - রবিবার - ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১০ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

মুক্তাগাছায় জামায়াত নেতার নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধার কবরের ফলক ভাংচুর জায়গা দখল

মুক্তাগাছা(ময়মনসিংহ)প্রতিনিধি: ৪ জানুয়ারি ২০১৬, সোমবার,

মুক্তাগাছার মুজাটি গ্রামে জামায়াত নেতার নির্দেশে এক মুক্তিযোদ্ধার কবরের নাম ফলক ভেঙ্গে ফেলে জায়গা দখলের অভিযোগ পাওয়াগেছে। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।
অভিযোগে জানাযায় উপজেলার মুজাটি গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা রমজান আলী ১৯৮৯ সালে মারাগেলে বাড়ির উঠান ঘেষে তাকে করব দেয়া হয়। সনত্মানরা কবরের পাশে পাকা করে মুক্তিযোদ্ধার নামফলক লিখে রাখেন। একই এলাকার জামায়াত নেতা শহিদ মুন্সি ও আমছর আলীরা বিভিন্ন সময় মুক্তিযোদ্ধা রমজান আলীর স্ত্রী ও ছেলেদের জায়গাজমি বেদখলের চেষ্টার অংশ হিসেবে তাদের উপর নানাভাবে অত্যাচার করে আসছিল। এসব নিয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দিলেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ করা হয়। গত বৃস্পতিবার সকালে ৬নং মানকোন ইউনিয়ন জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী আঃ মালেক মুন্সি ও জামায়ত সদস্য আব্দুস শহিদ মুন্সির নির্দেশে আমছর আলীর দুই পুত্র মজনু মিয়া ও সুজন মিয়া এবং তাদের মা মিলে মুক্তিযোদ্ধার কবরের নামফলক ভেঙ্গে ফেলে দেয়। পরে তারা কবরের একাংশ দখল করে ঘর উঠিয়ে ফেলে। এ নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা রমজান আলীর পুত্র মোঃ সোহরাওয়ার্দী স’ানীয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার বরাবরে অভিযোগ করেছেন। পরিবার ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ মিলে থানায় মামলার প্রস’তি নিচ্ছে বলে সর্বশেষ জানাগেছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:৪৪ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ০৪, ২০১৬