| রাত ৪:৪২ - শুক্রবার - ২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৪ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

ময়মনসিংহে মুক্তা গবেষণাগার ও মৎস্য জাদুঘর উদ্বোধন করলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | ২৬ ডিসেম্বর ২০১৫, শনিবার,
অত্যাধুনি সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত বানিজ্যিকভাবে ঝিনুক চাষের গবেষণা কার্যক্রম চালাতে ও ঝিনুক থেকে মুক্তা তৈরীর আধুনিক কলাকৌশল উদ্ভাবন করতে ময়মনসিংহে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটে অত্যাধুনিক সুযোগ-সবিধা সম্বলিত মুক্তা গবেষণাগার এবং একটি আধুনিক মৎস্য যাদুঘর উদ্বোধন করা হয়েছে।
ময়মনািসংহে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটে শনিবার দুপুরে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মোহাম্মদ ছায়েদুল হক আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিষ্ঠান দুটি’র উদ্বোধন করেন। এসময় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব মাকসুদুল হাসান খান, বিএফআরআই এর মহাপরিচালক মোহাম্মদ জাহের, জেলা প্রশাসক মুসত্মাকীম বিল্লাহ ফারুকী, বিএফআরআই এর পরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদ, প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরুল্লাহসহ কর্মকর্তাগণ উপসি’ত ছিলেন। পরে মন্ত্রী মুক্তা গবেষণাগার ও মাঠ পর্যায়ের গবেষণা কার্যক্রম ঘুরে দেখেন। এ সময় গবেষণাগারে কর্মকর্তারা মুক্তাচাষের আধুনিক কলাকৌশল সম্পর্কে মন্ত্রীকে অবহিত করেন।
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মোহাম্মদ ছায়েদুল হক জানান, গবেষণাগারটি ব্যবহারের মাধ্যমে গবেষকরা ঝিনুক থেকে মুক্তা তৈরীর কলা-কৌশল আয়ত্ব, ঝিনুকের প্রজননকাল সনাক্তে হিস্টোলজিক্যাল স্টাডি এবং মুক্তা তৈরীর জন্য ঝিনুক চাষের আধুনিক কলা-কৌশল উদ্ভাবনে সামর্থ হবে। এছাড়াও একই স্থানে আলাদা একটি মৎস্য যাদুঘরও উদ্বোধন করা হয়। এখানে স্বাদু ও সামুদ্রিক মৎস্য প্রজাতির বৃহৎ একটি সংগ্রহশালা গড়ে তোলার লক্ষ্য এই মৎস্য যাদুঘরটি নির্মাণ করা হয়েছে বলে মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃপক্ষ।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৫৭ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ২৬, ২০১৫