| রাত ৮:০৯ - রবিবার - ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

গফরগাঁওয়ে অপহৃত স্কুলছাত্রী উদ্ধারে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও জনতার মানববন্ধন

গফরগাঁও প্রতিনিধি,২১ ডিসেম্বর ২০১৫ঃ   ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার মশাখালী ইউনিয়নের বলদী ফজলুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী নিশি খাতুনকে (১৪) উদ্ধারে গতকাল সোমবার বিকেলে ঘন্টাব্যাপী মানব বন্ধণ করেছে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। অপহৃত নিশি বলদী গ্রামের বুলবুল পাঠানের মেয়ে। গত ১৭ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার ৯ম শ্রেণীর বার্ষিক পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে বলদী বাজার সংলগ্ন এলাকা থেকে নিশিকে একই গ্রামের আবুল কালামের বখাটে ছেলে কাওসার মিয়া (২২) তার সহযোগিদের সহয়তায় অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় গত শনিবার নিশির বড় ভাই রিফাত পাঠান উপজেলার পাগলা থানায় অপহরনকারী কাওসার তার বাবা আবুল কালাম, সহযোগি ইয়াছিন মিয়া, রাজিব মিয়াসহ ৬জনকে আসামী করে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন।
মামলা সূত্রে জানা যায়, বলদী গ্রামের বুলবুল পাঠানের মেয়ে ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী নিশি খাতুন বিদ্যালয়ে যাওয়া আসার পথে একই গ্রামের আবুল কালামের বখাটে ছেলে কাওসার প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। কিন্তু তাতে সাড়া না দেয়ায় নিশিকে অপহরনের হুমকি দেয় বখাটে কাওসার। এ ঘটনা কাওসারের বাবা-মাকে জানালে প্রতিকার না করে তারা উল্টো বিয়ের প্রস্তাব দেয়। অন্যথায় কোন ঘটনা ঘটলে সেটার জন্য তার জবাবদিহি করবে বলে সাফ জানিয়ে দেয়। এ অবস্থায় ১৭ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে বার্ষিক পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে বলদী বাজার সংলগ্ন এলাকা থেকে নিশিকে কয়েকজন সহযোগির সহয়তায় অপহরন করে নিয়ে যায় বখাটে কাওসার।  এ ব্যাপারে মশাখালী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোস্তোফা কামাল মনি দৈনিক লোকলোকান্তরকে বলেন, অপহরণকারীকে উদ্ধারে বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কয়েক হাজার এলাকাবাসী মানব বন্ধন করেছে। গফরগাঁওয়ের পাগলা থানার ওসি চাঁন মিয়া দৈনিক লোকলোকান্তরকে বলেন, অপহরনকারীসহ অন্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:১১ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ২১, ২০১৫