| সকাল ১০:৪৫ - রবিবার - ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

গফরগাঁওয়ে আ.লীগের ৩ নেতাকে কুপিয়ে আহতের প্রতিবাদে, অর্ধদিবস হরতাল পালিত

গফরগাঁও প্রতিনিধি ঃ ২০ ডিসেম্বর ২০১৫, রবিবার,
ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানাধীন উস্থি ইউনিয়নের কান্দিপাড়া বাজারে গত শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মনিরম্নজ্জামানের ছোট ভাই স্থানীয় আ.লীগ নেতা আক্তারম্নজ্জামান, আলী আকবর ও ছাত্রলীগ নেতা বাবু মন্ডলকে কুপিয়ে গুরম্নতর আহত করে দূর্বৃত্তরা। আহত তিনজনকে উদ্ধার করে ওই দিন রাতেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রতিবাদে  রোববার স্থানীয় কান্দিপাড়া বাজারের ৪শতাধিক ব্যবসায়ী তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে অর্ধদিবস হরতাল পালন করে। পরে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বাদলসহ আ.লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ঘটনাস’লে পৌছে সুষ্ঠ বিচারের আশ্বাস দিলে ব্যবসায়ীরা হরতাল তুলে নেন। এছাড়াও স’ানীয় আ.লীগের নেতা কর্মীরা বিড়্গোভ মিছিল করে।
এ ঘটনায় আহত আক্তারম্নজ্জামানের ভাই আসাদুজ্জামান খোকন বাদী হয়ে পাগলা থানায় একটি অভিযোগ দায়েরের প্রসত্মতি চলছে।
জানা যায়, স্থানীয় আ.লীগ নেতা আক্তারম্নজ্জামান, আলী আকবর ও ছাত্রলীগ নেতা বাবু শনিবার রাত সাড়ে দিকে উপজেলার কান্দিপাড়া বাজার থেকে বাকশি গ্রামের নিজ বাড়িতে ফেরার পথে দূর্বৃত্তরা তাদেরকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস’্য কমপেস্নক্সে নিয়ে আসে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ওইদিন রাতেই তাদেরকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মনিরম্নজ্জামান অভিযোগ করে বলেন, চিহ্নিত কিছু সন্ত্রাসী কান্দিপাড়া বাজারে জোর পূর্বক ফাও খেতে চান। প্রতিবাদ করায় ওই সন্ত্রাসীরাই আমার ভাইসহ আ.লীগের এই তিন জনকে কুপিয়ে আহত করেছে।
এ ব্যাপারে পাগলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চাঁন মিয়া বলেন, ফাও খাওয়া নিয়ে নয়। মাটি কাটার ভেকু নিয়ে স’ানীয় আ.লীগের দুই গ্রম্নপের মধ্যে বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে এখনো পর্যনত্ম কোন অভিযোগ পায়নি।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:০৩ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ২০, ২০১৫