| রাত ২:২৩ - মঙ্গলবার - ১১ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ২৮শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ৪ঠা জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন খাতে আরও ডাচ বিনিয়োগ চান

অনলাইন ডেস্ক | ৫ নভেম্বর ২০১৫, বৃহস্পতিবার,

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে আরও ডাচ বিনিয়োগ কামনা করেছেন। তিনি বাংলাদেশ ও নেদারল্যান্ডের মধ্যে বাণিজ্য সম্পর্ক জোরদারের লক্ষ্যে প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে বাংলাদেশ থেকে আরও বিশ্বমানের পণ্য আমদানী করার জন্য নেদারল্যান্ডের কোম্পানীগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, ওষুধ, চামড়া, কৃষি প্রক্রিয়াকরণ, হালকা প্রকৌশল, পাট, বিদ্যুৎ, জ্বালানি বিশেষ করে নবায়নযোগ্য জ্বালানি অবকাঠামো ও জাহাজ চলাচল খাতে বিনিয়োগ করার জন্য ডাচ কোম্পানীগুলোকে বাংলাদেশ স্বাগত জানাবে।
নেদারল্যান্ডের বৈদেশিক বাণিজ্য ও উন্নয়ন সহযাগিতা বিষয়ক মন্ত্রী লিলিয়ান প্লুমেন বুধবার নেদারল্যান্ডের প্রশাসনিক রাজধানী হেগ নগরীতে গ্রান্ড হোটেল আমরাত কুরহাউজ-এ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করেন। বৈঠককালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ অনুরোধ জানান।
বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের এ বিষয়ে ব্রিফ করেন।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তৈরি পোশাক ছাড়াও ডাচ আমদানীকারকরা প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে ওষুধ, বাইসাইকেল, পাট ও পাটজাত পণ্য, হোম টেক্সটাইল, হিমায়িত খাদ্য, জুতা, সিরামিক, ক্যাবল ওয়্যার, পিভিসি ব্যাগ, মোটর পার্টসসহ বিশ্বমানের বাংলাদেশী পণ্য আমদানী করতে পারে।
দেশের তৈরি পোশাক খাতের উন্নয়নে তাঁর সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ শ্রমিকদের অধিকার, পেশাগত নিরাপত্তা, স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা এবং দায়িত্বশীল ও ফলপ্রসূ উপায়ে কাঠামোগত সমন্বয়ের লক্ষ্যে জোরদার প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে।

তিনি তৈরি পোশাক খাতে প্রবেশাধিকার, অর্থায়ন ও ন্যায্যমূল্য সংশ্লিষ্ট ইস্যুগুলোর মোকাবেলায় বাংলাদেশে একটি সম্মেলন আহ্বান করার জন্য নেদারল্যান্ডের প্রশংসা করেন।
ডাচ বৈদেশিক বাণ্যিজ্যমন্ত্রী নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে তৈরি পোশাক খাতে বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের ভূয়সী প্রশংসা করেন।
খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের উল্লেখ করে তিনি আশ্বাস প্রদান করেন যে, নেদারল্যান্ড খাদ্যের মান নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশকে সহায়তা দেবে।
লিলিয়ান প্লুমেন এমডিজি লক্ষ্যসমূহ বিশেষ করে দারিদ্র্য বিমোচনে সাফল্য অর্জন করার জন্য বাংলাদেশের প্রশংসা করেন।
পরে ডাচ অবকাঠামো ও পরিবেশ মন্ত্রী মেলানি শুল্টজ ভান হায়েজেন একই হোটেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাত করেন।
বৈঠককালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ জ্ঞান ও উদ্ভাবনীমূলক অংশীদারিত্বের কাঠামোর মধ্যে শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দীর্ঘমেয়াদী সামর্থ গড়ে তোলার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ডেল্টা প্লান ২১০০ কর্মসূচির অধীনে ডাচ সরকারের সঙ্গে একটি সুদীর্ঘ সম্পর্ক গড়ে তুলতে চায়।
তিনি আরো বলেন, ফরিদপুরে বাংলাদেশ নদী গবেষণা ইনস্টিটিউটের সংস্কার ও আধুনিকায়নের লক্ষ্যে দু’দেশের মধ্যে একটি চুক্তি পানি খাতে সহযোগিতার নতুন পথ উন্মুক্ত করবে।
প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে ড্রেজার তৈরির জন্য ডাচ মন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি সাগর ও নদীতে ভূমি পুনরুদ্ধারে ডাচ সহায়তা ও সহযোগিতা কামনা করেন।
দু’দেশের মধ্যে নদী গবেষণা ও ভূমি পুনরুদ্ধার কাজে চলমান সহযোগিতার উল্লেখ করে মেলানি শুল্টজ ভান হায়েজেন বলেন যে, তাঁর সরকার বাংলাদেশ ডেল্টা প্লান ২১০০ বাস্তবায়নে আরো সহায়তা দিবে।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী এম নজরুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. আবুল কালাম আজাদ, বাণিজ্য সচিব হেদায়েদ উল্লাহ আল-মামুন, নৌপরিবহন সচিব শফিক আলম মেহেদী, পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়াল এডমিরাল এম নিজামউদ্দিন আহমেদ ও নেদারল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মুহাম্মদ বেলাল অন্যান্যের মধ্যে এসব বৈঠককালে উপস্থিত ছিলেন। (বাসস) :

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:১০ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৫, ২০১৫