| ভোর ৫:১৬ - সোমবার - ১লা আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ২রা মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

ময়মনসিংহ বিভাগ বাস্তবায়ন হওয়ায় বিজয় ও আনন্দ শোভাযাত্রা রবিবার

স্টাফ রিপোর্টার,
ময়মনসিংহ বিভাগ দাবীতে বিগত ২৬ বছর যাবত জেলা নাগরিক আন্দোলনের নেতৃত্বে পরিচালিত বৃহত্তর ময়মনসিংহবাসীর বিভাগ আন্দোলনের যৌক্তিকতা অনুধাবন করে অবশেষে ময়মনসিংহ বিভাগ বাস্তবায়ন করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে আগামী ১৮ অক্টোবর রবিবার বেলা ১১টায় ময়মনসিংহ শহরে বিশাল বিজয় ও আনন্দ শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই শহরের বিভিন্ন শিড়্গা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও এনজিও সংগঠন ব্যানার নিয়ে মিছিলে অংশ নেয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

ময়মনসিংহ জেলা নাগরিক আন্দালন ও উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নূরম্নল আমীন কালাম জানান, শহরের টাউন হল চত্বর থেকে রবিবার বেলা ১১টায় শোভাযাত্রার উদ্বোধন করবেন সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান খান। বিভিন্ন শিড়্গা প্রতিষ্ঠান প্রধানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। গতকাল শুক্রবার শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পথসভায় সর্বসত্মরের মানুষকে এই বিজয় ও আনন্দ শোভাযাত্রায় অংশ নেয়ার আহবান জানান জেলা নাগরিক আন্দোলনের নেতৃবৃন্দ। এই কর্মসূচী সফল করতে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও এনজিও সংগঠনের সাথে আলোচনা করা হয়েছে। ময়মনসিংহ বিভাগ বাসত্মবায়ন দাবীর আন্দোলনে যারা বিশেষ অবদান রেখেছেন তারাসহ ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর ও নেত্রকোনা এই ৪ জেলা ও উপজেলার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এবং সর্বসত্মরের প্রতিনিধিবৃন্দ অংশগ্রহন করবেন।

বহু প্রত্যাশিত ময়মনসিংহ বিভাগের গেজেট গত (১৩ অক্টোবর) রাতে প্রকাশিত হয়েছে। মহামান্য রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাঠ প্রশাসন শাখা-২ এর প্রজ্ঞাপনে সিনিয়র সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী স্বাক্ষরিত এস.আর.ও. নং ৩০৪-আইন/২০১৫ স্বারকে এই গেজেটটি প্রকাশ করা হয়। এরআগে ময়মনসিংহ বিভাগ বাস্তবায়নে প্রতিষ্ঠার লড়্গে গত ১৪ সেপ্টেম্বর নিকারের বৈঠকে অনুমোদনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর ও নেত্রকোনা এই ৪ জেলা নিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগ ঘোষণা করেন। ময়মনসিংহ বিভাগ প্রতিষ্ঠার জন্য গত ২৬ জানুয়ায়ী, ২০১৫ নীতিগত অনুমোদন দিয়েছিল মন্ত্রিসভা।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:৩৯ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১৬, ২০১৫