| বিকাল ৫:২৯ - শনিবার - ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৩ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

গফরগাঁওয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা অজ্ঞাত যুবতীর পরিচয় মিলেছে

গফরগাঁও প্রতিনিধি,১৩ অক্টোবর ২০১৫, মঙ্গলবারঃ
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে শ্বাসরোধে হত্যার পর ধান ক্ষেতে ফেলে রাখা অজ্ঞাত যুবতীর পরিচয় মিলেছে। অজ্ঞাত এ যুবতীর নাম ইয়াছিমিন আক্তার (২২)। সে শ্রীপুরের কাওরাঈদ ইউনিয়নের ধামরই গ্রামের ইব্রাহীম মাজুর মেয়ে। সে শ্রীপুরের কালার মাষ্টার পোশাক কারখানায় কাজ করতো। এ হত্যা কান্ডের ঘটনায়  মঙ্গলবার নিহতের বড় বোন জেসমিন আক্তার অজ্ঞাত দূর্বৃত্তদের আসামী করে গফরগাঁওয়ের পাগলা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
নিহতের বড় বোন জেসমিন অভিযোগ করে বলেন, গত দুই বছর পূর্বে একই গ্রামের রিটনের সাথে তার বোন ইয়াছমিনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে রিটন তার বোনকে নানাভাবে নির্যাতন করে আসছিল। এ অবস্থায় গত রবিবার রিটন তার বোন ইয়াছমিনের মুঠোফোনে বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে একটি ম্যাসেজ পাঠায়। ওই দিন সন্ধা থেকে ইয়াছমিন নিখোঁজ ছিল।
প্রসঙ্গত উপজেলার মশাখালী ইউনিয়নের শিলার বাজার এলাকার একটি ধান ক্ষেতে খয়েরী রঙের বোরকা পড়া এক নারীর লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা গত সোমবার দুপুরে পাগলা থানা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর লাশ উদ্ধার।
পাগলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চাঁন মিয়া বলেন, গলায় ওড়না পেচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা ওই যুবতীর বড় বোন বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:৩২ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১৩, ২০১৫